৩২ কোটি গালি খেয়েছি, বাংলাদেশেই আর আসতাম না : তামিম

0
269

কথায় আছে, ক্যাচ মিস তো ম্যাচ মিস। অনেক নিশ্চিত জয়ের ম্যাচও হারতে হয় শুধু ক্যাচ মিসের কারণে। ক্রিকেট ইতিহাসে এমন হৃদয় বিদারক বহু ঘটনা আছে। এমন কিছু ঘটতে চলেছিল তামিম ইকবালের বিপক্ষেও। কিন্তু ভাগ্য বিধাতা মুখ ফিরিয়ে নেয়নি, জয় পরাজয়ের দোলাচলে দুলতে থাকা সময়ে ক্যাচ মিস করেছিলেন; কিন্তু বাংলাদেশ জিতে যাওয়াতে এই যাত্রায় কাঠগড়ায় দাঁড়ানো থেকে বেঁচে যান বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক।

ম্যাচ জেতার সঙ্গে সঙ্গে মানুষও ক্যাচ মিসের বিষয়টি ভুলে যান। তবে মানুষ যে তাকে একেবারে ছেড়ে দেননি সেটাই নিজের মুখেই বলেছেন। ঘটনাটি ২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপে; ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক ম্যাচে। এতদিনের পুরোনো ঘটনা এখন কেন? লকডাউনের বদৌলতে সামাজিক যোগোযোগমাধ্যম ফেসবুকে লাইভে আড্ডা দেন তামিম। সেখানে তার সঙ্গী থাকেন জাতীয় দলের সতীর্থরা। গতকাল শুক্রবার রাতে তার সঙ্গে ছিলেন তাসকিন আহমেদ ও রুবেল হোসেন। অতিথি হিসেবে আসেন নাসির হোসেন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওই ম্যাচে জয়ের নায়ক ছিলেন রুবেল। আর তামিমের মিস করা ক্যাচের বোলার ছিলেন তাসকিন। ইংল্যান্ডের জিততে প্রয়োজন ১৫ বলে ২০ রান। তাসকিনের বলে ক্রিস ওকসের মিড অনে তোলা ক্যাচ হাত ফসকে পড়ে যায় তামিম ইকবালের। লাইভে অতিথি হিসেবে আসা নাসির হোসেন প্রশ্ন করেন এই ক্যাচ নিয়ে, তামিম জানান এই ম্যাচ হারলে বাংলাদেশেই আসতাম না।

তামিম বলেন, ‘আমি ওই মুহূর্তে ৩২ কোটি গালি খেয়েছি। কারণ বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষ একটা করে তো দেয় নাই, দুটা করে গালি দিয়েছে। রুবেল মাশআল্লাহ যে বোলিং করলো দুটা উইকেট নিয়ে নিলো। ওই ম্যাচের হাইলাইটস দেখলে দেখবি যে সবাই রুবেলের পেছনে দৌঁড়ায়। কারণ ম্যাচ জিতে গেছি। আমি রুবেলের পেছনে দৌঁড়েছি কারণ আমি বেঁচে গেছি। যদি ওই ম্যাচ হারতাম আমার আর বাংলাদেশে আসা লাগতো না। যেকোনো এক জায়গায় চলে যেতাম, তবে বাংলাদেশে আসতাম নারে ভাই। দেশে ফিরলে মানুষ আমাকে মেরেই ফেলতো।’

ওই ম্যাচে ক্যাচ মিসের পর মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন বলে জানান তামিম। তিনি বলেন, ‘সবারই মনে আছে, ২০১৫ বিশ্বকাপে আমি ওকসের ক্যাচটা ছেড়েছিলাম। যখন খেলাটা ক্লোজ হয়ে গিয়েছিল। তাসকিনের বলে। ক্যাচটা ছাড়ার পর আমার কাছে মনে হচ্ছিলো মাটি ফাঁক হয়ে যাক আমি ভিতরে ঢুকে যাই আমাকে কেউ আর দেখার দরকার নাই।’ রুবেলের অনবদ্য বোলিংয়ে বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি জিতেছিল ১৫ রানে। আর রুবেলের দুর্দান্ত বোলিংয়ে তামিমেরও দেশে আসাটা সুন্দরভাবেই হয়েছে!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে