৩০ টাকা চাওয়ায় মাঝ রাস্তায় স্ত্রীকে তালাক

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতে সবজি কেনার জন্য স্বামীর থেকে ৩০ টাকা চেয়েছিলেন এক নারী। এই ‘অপরাধে’ মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে চিত্কার করে তিন তালাক দিয়ে দিলেন স্বামী। তিনি স্ত্রীকে মারধরও করেন বলে অভিযোগ। আহত অবস্থায় ৩০ বছরের জায়নাবকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিত্সার পর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়।
শনিবার ভারতের উত্তর প্রদেশের নয়ডার রাওজি বাজারে এই ঘটনা ঘটে।
জায়নাবের বাবা মুরসলীমের অভিযোগ, তালাকের পর তাঁর মেয়েকে মারধরের পাশাপাশি তাঁর কানের দুলও খুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন তাঁর শ্বাশুড়ি। কিন্তু বাবার দেওয়া উপহার না-খোলায় আরও হেনস্থার মুখে পড়তে হয় জায়নাবকে। তাঁকে তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকজন মারধর করেন।
মেয়েটির বাবা জানান, তাঁর ৯ বছর আগে বিয়ে হয়। চারটি সন্তান থাকলেও স্বামী সাবিরের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল না। তিনি জানান, দু বছর আগে একবার স্ত্রীর মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেছিল সাবির।
কয়েকবছর আগে জায়নাব অসুস্থ হওয়ায় তাঁকে বাপের বাড়িতে রেখে আসে সাবির। ৫-৬ দিন পর জায়নাব ফিরে গেলে তখনও তাঁকে বাড়িতে ফেরাতে অস্বীকার করা হয়। সাবির ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে দাদরি থানায় এজাহার দায়ের করা হয়েছে।
সাবির ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট থেকে জামিন পেয়ে যাওয়ায় প্রশ্ন তুলেছে জায়নাবের পরিবার। তাঁদের দাবি, সাবিরকে সুরজপুর আদালতে পেশ করা উচিত ছিল। এই ঘটনা পরিবার আদালতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.