স্বামীসহ ই-অরেঞ্জের প্রতিষ্ঠাতা সোনিয়া মেহজাবিন কারাগারে

88


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: এগারোশত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘ই-অরেঞ্জ’র প্রতিষ্ঠাতা সোনিয়া মেহজাবিন ও তার স্বামী মাসুকুরকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) বিকেলে ঢাকার অতিরিক্ত চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবুবকর সিদ্দিকের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের দুজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বাদীর এজাহার থেকে জানা যায়, গত ২১ এপ্রিল পণ্য কেনার জন্য ই-অরেঞ্জে অগ্রিম টাকা দেন। তবে ই-অরেঞ্জ নির্ধারিত তারিখে পণ্য সরবরাহ করেনি, টাকাও ফেরত দেয়নি। নিজেদের ফেসবুক পেজে বার বার নোটিশ দিয়েছে, সময় চেয়েছে। কিন্তু পণ্য ও টাকা দেয়নি। সর্বশেষ তারা গুলশান-১ এর ১৩৬/১৩৭ নম্বর রোডের ৫/এ নম্বর ভবনে অবস্থিত অফিস থেকে পণ্য ডেলিভারির কথা বললেও তারা ডেলিভারি দেয়নি।

আরও পড়ুন: গুলশান থানায় ই-অরেঞ্জের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

এছাড়াও আজ পর্যন্ত তারা গ্রহকদের কোনো পণ্য ডেলিভারি না করে এক লাখ ভুক্তভোগীর প্রায় এক হাজার ১০০ কোটি টাকা প্রতারণামূলকভাবে আত্মসাৎ করেছে বলে ওই এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর গুলশান থানায় ভুক্তভোগী তাহেরুল ইসলাম প্রতারণার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন।

এজাহারে অন্য আসামিরা হলেন- আমানউল্ল্যাহ, বিথী আক্তার, কাউসার আহমেদ, সোনিয়া মেহজাবিনসহ ই-অরেঞ্জের সব মালিকরা। মামলার এজাহারে উল্লেখিত আসামিদের প্রত্যেককেই ই-অরেঞ্জের মালিক বলে দাবি করা হয়।

সারাবাংলা/এআই/এনএস





Source link