স্বাধীনতা দিবসের দিন পাক-ভারত গুলাগুলি, নিহত ১০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কাশ্মীর সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানের সেনাদের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে ভারতের পাঁচ ও পাকিস্তানের তিন সেনা সহ ১০ জন নিহত হয়েছেন।
দুটি ভিন্ন সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। একটি সংঘর্ষে ভারতের ৫ সেনা ও পাকিস্তানের ৩ সেনা নিহত হয়। অপর ঘটনায় দুজন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়।
আজ বৃহস্পতিবার ভারতজুড়ে উদযাপিত হচ্ছে ৭৩তম স্বাধীনতা দিবস। এরই মধ্যে এই সংঘর্ষ ও হতাহতের খবর এলো।
পাকিস্তানের ইন্টার-সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশন্সের (আইএসপিআর) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গাফুরের বরাতে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডনের প্রতিবেদনে এই সংঘর্ষ ও হতাহতের তথ্য জানানো হয়েছে।
এক টুইটবার্তায় গাফুর আরো লিখেছেন, জম্মু-কাশ্মীর ইস্যু আড়াল করতে ভারতীয় বাহিনী উসকানিমূলকভাবে পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনীকে লক্ষ্য করে হামলা চালায়। এতে আমাদের তিন সেনা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনার পাল্টা জবাব দিয়েছে পাকিস্তান। এতে ভারতের পাঁচ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অনেক। এ ছাড়া একাধিক বাঙ্কার ধ্বংস করে দেয়া হয়েছ। এ ঘটনার পর থেকে সীমান্তে থেমে থেমে গোলাগুলি চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
গত ৫ আগস্ট ভারত সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নিলে তীব্র প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তান। ভারতের পদক্ষেপের কারণে ওই অঞ্চলে উদ্ভূত সংকটের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে জরুরি বৈঠকে বসার আহ্বান জানায় পাকিস্তান।
ওদিকে চীনও জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে ১৫ বা ১৬ আগস্ট কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে বৈঠকে বসার আহ্বান জানিয়েছে।
১৯৪৭ সালে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর ভাগ হয়ে যাওয়ার পর পুরো কাশ্মীর দখলে নেওয়ার জন্য দুইবার যুদ্ধে জড়িয়েছে দেশ দুটি। এবার হয়তো তৃতীয় আরেকটি যুদ্ধে জড়িয়ে পড়তে পারে তারা।
সূত্র: দ্য ডন, স্পুতনিক নিউজ

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.