স্বল্প পুজিঁ নিয়ে আতকিয়ার স্বপ্ন পুরনের যাত্রা

0
103


একটা সময় ছিলো, যখন নারীদের সকল কার্যক্রম চার দেয়ালের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিলো। নিজ যোগ্যতা, সততা, আর পরিশ্রমের জোরে তারা আজ অনেক কিছু করে হচ্ছে স্বাবলম্বী। আমাদের সমাজে এমন অনেকে আছে যাদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা তাদের জিবনে আজ অনেক বড় ভুমিকা পালন করছে। বিগত কয়েক বছরের দিকে তাকালে এর একটা ইতিবাচক প্রভাব কিন্তু দেখা যায়।

হোম ইকোনমিক্সের ফুড এন্ড নিউট্রিশন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আতকিয়া মায়মুনা নাজিফা। তার বড় হয়ে ওঠা উত্তরায়। ছোটবেলা থেকেই ক্রাফ্টিং এর ওপর আগ্রহ ছিলো তার। সেখান থেকেই মুলত এ উদ্যোগ নেন। তার নিজস্ব উদ্যোগের নাম “রঙিন আরশি”। তিনি এটি নিয়ে কাজ করতে শুরু করেন ২০২০ সালের ১২ই মার্চ।

তিনি গ্লাস পেইন্ট নিয়ে বর্তমানে কাজ করছেন। এর মধ্যে ঢাকার বাহিরেও কয়েকটি জেলায় তিনি প্রোডাক্ট ও ডেলিভারী দিয়েছেন।

তার ব্যাবসার শুরুটা করেছিলেন ৫০০ টাকায়। শুরুতে বাসার ব্যবহৃত কাচেঁর জিনিসপত্রে ট্রায়াল দিয়েছিলেন। এরপর কাচের কাপে পেইন্টিং এর কাজ করা শুরু করেন। শুরুতে শুধুমাত্র কাচেঁর কাপের উপর কাজ করলেও এখন তিনি ওয়ালমেট, ক্যান্ডেল ল্যাম্পেও কাজ করেন। সামনে বাসাবাড়ি সাজানোর জিনিসপত্র, একুরিয়াম, ক্যানভাস পেইন্টিং এবং ক্লে নিয়েও কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।

শুরুটা স্বল্প পুজিঁতে হলেও কোন কোন মাসে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকাও আয় করেন তিনি। এর মধ্যেই ঢাকার বাহিরেও কয়েকটি শহরে তার পণ্য ডেলিভারীও করেছেন।

পরিবারের সকলের যথেষ্ট সহযোগিতা পেয়েছিলেন তিনি। সবচেয়ে বেশি অনুপ্রেরনা দিয়েছেন তার মা, বাবা ও বন্ধুরা। তবে শুরুতে বেশ কিছু চ্যালেন্জের সম্মুখীন হতে হয়েছে তাকে। যখন কাজ শুরু করেন তখন লকডাউন চলছিলো, কাচাঁমাল সংগ্রহ করতেও অনেক অসুবিধা হয়েছিল। কুরিয়ার করার সময়ও কাচেঁর পণ্য হওয়ার কারনে একটু সমস্যাও হত। তবে এখন এসকল সমস্যা অনেকটা মিটিয়ে নিতে পেরেছেন আতকিয়া।

তিনি সকল উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “যেকোনো কাজ শুরু করার আগে কাজের ক্ষেত্র সম্পর্কে ভালো ভাবে জেনে নিয়ে তবেই কাজে নামতে হবে। নিজের কাজ নিয়ে প্রচুর জানার আগ্রহ থাকতে হবে, জানতে হবে। যেকোনো ঝুঁকি নেওয়ার মত শক্ত মনোবল তৈরি করে তবেই কাজে নামতে হবে। আসলে কোন পথই মসৃন নয়। পরিশ্রম সব কাজেই আছে। আর পরিশ্রম করলে  ইন শা আল্লাহ সফলতা আসবেই।”
খায়রুন্নাহার পিংকি
কন্টেন্ট রাইটিং ডিপার্টমেন্ট, ইন্টার্ন,
ওয়াইএসএসই



Source link