স্পেনে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন উপলক্ষে সাংবাদ সম্মেলন

291

কবির আল মাহমুদ, স্পেন :
স্পেনের প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে গঠিত নির্বাচন কমিশন স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে। এসময় ভোটার তালিকা প্রণয়নসহ একটি সুষ্ঠ এবং নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালনের বিষয়ে নির্বাচন সংশ্লিস্টদের পাশাপাশি সংবাদ কর্মীদের সহযোগিতা চাইলেন নতুন দায়িত্ব পাওয়া নির্বাচন কমিশন।

সোমবার (১৫ নভেম্বর )রাতে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের হলে আয়োজিত বিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার খুরশেদ আলম মজুমদার। নির্বাচন কমিশনের সদস্য সচিব দুলাল সাফা ও যুগ্ম সচিব এস এম মাসুদুর রহমানের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোজাম্মেল হক মনু, মাহবুবুর রহমান ঝন্টু, কোষাধ্যক্ষ বাহারুল আলম,সহ-কোষাধ্যক্ষ রমিজ উদ্দিন, সদস্য হেমায়েত খান, জাকিরুল ইসলাম জাকি, মাহবুব আলম শিপন, সাঈদ মিয়া প্রমুখ। এছাড়া উপস্তিত ছিলেন কমিউনিটি নেতা মাহবুবুর রহমান ঝন্টু, সাইফুল ইসলাম ইকবাল।

সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে প্রধান কমিশনার খুরশেদ আলম মজুমদার বলেন, ভোটার তালিকা ডিজিটাল পদ্ধতিতে তোলার ব্যবস্থা, ভোটারদের নির্বাচনের প্রতি আগ্রহ বৃদ্ধির জন্য সকল আঞ্চলিক কমিটির সাথে বৈঠক, নির্বাচনী আচরণবিধি মাধ্যমে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি, নির্বাচনের দিন কঠোর নিরাপত্তা বাহিনীর মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায়সহ সংগঠনের সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেন।

এছাড়া তিনি বর্তমান বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের চলমান কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করার লক্ষ্যে নানা পদক্ষেপ তুলে ধরেন। সময়োপযোগী গঠনতন্ত্র প্রনয়নের মাধ্যমে চলমান দুই বছর মেয়াদের পরিবর্তে আগামী কমিটি তিন বছর মেয়াদ এবং একটি স্থায়ী কার্যালয়ের ব্যবস্থাসহ বেশকিছু প্রস্তাবনার কথা তুলে ধরেন এবং এ কাজগুলো নির্বাচিত কমিটির মাধ্যমে বাস্তবায়নের আশাবাদ ব্যাক্ত করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম মজুমদার। তিনি স্পেন প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতিনিধিত্বকারী এ সংগঠনের কার্যক্রমকে গতিশীল এবং সবার গ্রহনযোগ্য একটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার লক্ষ্যে সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

এ জন্য আগামী ২১ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে এসোসিয়েশন হলে ভোটার তালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু হবে। সপ্তাহের তিনদিন রবি,সোম এবং মঙ্গলবার চলবে ধারাবাহিকভাবে এ কার্যক্রম চলবে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রতি ভোটারকে এজন্য নির্ধারিত ফ্রি ৫ ইউরো পরিশোধের মাধ্যমে সদস্য নবায়ন করে নিতে হবে।

এ সময় প্রার্থীদের নির্বাচনী আরণবিধি প্রতিপালন বিষয়ক নানা প্রশ্নের জবাব দেন নতুন দায়িত্ব পাওয়া নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা।