স্ত্রীর একাধিক পরকীয়ার জেরে কসাই ভাড়া করে টুকরো টুকরো করে খুন!

প্রতিবেশী ডেস্কঃ একাধিক পুরুষের সঙ্গে পরকীয়া করায় ৩০ হাজার টাকায় কসাই ভাড়া করে স্ত্রীকে খুন করালেন স্বামী। ভয়ংকর এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে।
গত বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পশ্চিমবঙ্গের বালি জেটিয়া হাউসের কাছে গঙ্গার ঘাট এলাকা থেকে ওই নারীর টুকরো টুকরো দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার বালি জেটিয়া হাউসের কাছে গঙ্গার ঘাটে কালো রঙের একটি ব্যাগ ও একটি চটের ব্যাগ পরে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। এ সময় কালো রঙের ব্যাগটিতে এক নারীর কাটা মাথা দেখা যায়। পরে বিষয়টি পুশিকে জানালে ব্যাগ দুটি উদ্ধার করে।
তবে কালো ব্যাগটিতে কাটা মাথা ও দেহের ওপরের অংশ টুকরো টুকরো করে কাটা ছিল। আরেকটি চটের ব্যাগ থেকে পাওয়া যায় পাঁচটি ধারালো অস্ত্র ও জামাকাপড়। তবে ব্যাগের মধ্যে নিহত নারীর দেহের ওপরের অংশ পাওয়া গেলেও, নিচের অংশ পাওয়া যায়নি।
তবে এ ঘটনায় একাধিক ব্যক্তি জড়িত থাকার বিষয়েও নিশ্চিত হয় পুলিশ। এরপর ওই নারীর কাটা মাথার ছবি থানায় পাঠানো হয় পরিচয় জানার জন্য।
এদিকে শিবপুর থানায় গণেশ চ্যাটার্জি লেনের বাসিন্দা সোনি রজক নামে এক নারীর নামে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়েছে। যার সঙ্গে উদ্ধার হওয়া কাটা মাথার মিল রয়েছে।
পরে পেশায় ধোপা উপেন্দ্র রজককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। তবে জিজ্ঞাসাবাদ উপেন্দ্র রজকের কথায় অসঙ্গতি পায় পুলিশ। ইতিমধ্যে উপেন্দ্র রজক এলাকায় জানিয়ে দিয়েছে, তার স্ত্রী অন্য এক যুবকের সঙ্গে পালিয়েছেন।
পুলিশ পরে সিসিটিভি ফুটেজ দেখেন। প্রথমে এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ দেখা যায়, বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে হাতে ব্যাগ নিয়ে তিন ব্যক্তি হেঁটে শিবপুর এলাকা দিয়ে যাচ্ছেন। এর পর বালিখাল এলাকার আরেকটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, ওই তিনজন ব্যাগসহ রিকশায় চড়ে যাচ্ছেন।উপেন্দ্র রজককে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ স্বীকার করে।
এদিকে খুনের ঘটনায় প্রেপ্তার করা হয়েছে কসাই দিলওয়ার, নিহতের স্বামী উপেন্দ্র রজক ও শাকিল আহমেদ নামে আরও এক ব্যক্তিকে। খুনে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.