সূবর্ণ জয়ন্তীর শপথ হোক দুর্নীতর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের: ভাষা সৈনিক মঞ্জুরুল হক

0
227

সূবর্ণ জয়ন্তীর শপথ হোক দুর্নীতর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মন্তব্য করে স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মঞ্জুরুল হক সিকদার বলেন, দুর্নীতি আর দুর্নীতিবাজদের কারণে স্বাধীনতা সুফল এখনও বাংলাদেশের মানুষের দাড়গোড়ায় পৌছায় নাই। এই সূবর্ণ জয়ন্তীতে শপথ নিতে হবে দুর্নীতি ও দুবৃত্তায়ন মুক্ত স্বদেশ প্রতিষ্ঠার।

সোমবার (১ মার্চ) বাংলাদেশের সূবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে গৃহিত কর্মসূচীর উদ্বোধন উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে “শিখা চিরন্তনে” স্বাধীনতা সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন নাগরিক কমিটি কর্তৃক পুষ্পস্তবক অর্পনের পর তিনি টেলিকনফারেন্সে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার জন্য অত চড়া দাম পৃথিবীর অতি অল্প জাতিই দিয়েছে। রক্তে কেনা এই বাংলাদেশ দুর্নীতিবাজদের কারণে ব্যর্থ হতে পারে না। দুর্নীতির থাবা কখনোই পিছু ছাড়েনি বাংলাদেশের। ‘দুর্নীতি’ দূর করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে।

এসময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বক্তব্য রাখেন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়কদ্বয় জাসদ উপদেষ্টা এনামুজ্জামান চৌধুরী, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, কুমিল্লা বিভাগীয় সমন্বয়কারী কৃষক মো. মহসিন ভুইয়া, এনডিপি ভাইস চেয়ারম্যান রাজু আহমেদ, আন্তর্জাতিক প্রবাসী মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান এইচ এম মনিরুজ্জামান, নারী নেত্রী খালেদা ফেরদৌস, কাজী শাহনাজ মিনু, মানবাধিকার সংগঠক পারভেজ হোসেন বাবু প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্যে কমিটির সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তীতে দেশের নতুন প্রজন্মের দায়িত্ব দুটি :স্বাধীনতার স্থপতিদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন এবং তাদের প্রতিষ্ঠিত দেশকে গড়ে তোলার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে জাতিকে সুসংহত করা। জাতির মধ্যে এখনও নানা রকম বিভেদ বিদ্যমান। মতাদর্শিক পার্থক্য গণতান্ত্রিক সমাজে অবশ্যই থাকবে। কিন্তু দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে কোনো দ্বিমতের অবকাশ নেই। তা করা সম্ভব শুধু কোনো দেশদ্রোহীর পক্ষেই।

কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও জাসদ উপদেষ্টা এনামুজ্জামান চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ জন্মের পর ৫০ বছরেও দেশ স্বাধীনতার আকাঙ্খা বাস্তবায়নে ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরপাক খেয়ে চলেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতার মূল্যে রচিত সংবিধানের মূল্যবোধ এখনো সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে।

কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, দেশের মানুষ কী স্বাধীনতার সুফল ভোগ করতে আছেন ? ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন “এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম”। বঙ্গবন্ধু মুক্তির জন্য স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি কিন্তু মুক্তি পাইনি। এখনো সমাজে বৈষম্য ও বঞ্চনা বিদ্যমান।