সারাদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করা উচিতঃ তসলিমা

অতিথি লেখকঃ আইএস জঙ্গিদের ভয়াবহ বোমা হামলায় ৩৫৯ জনের প্রাণহানির পর বোরকা নিষিদ্ধ করেছে দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা। আজ সোমবার থেকে কার্যকর হচ্ছে এই নিষেধাজ্ঞা। শুধু তাই নয়, মুখ ঢাকা কোনও পোশাক পরা যাবে না বলে গতকাল রবিবার ডিক্রি জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। দেশটির এমন সিদ্ধান্তে বিশ্বব্যাপী মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। বোরকা নিষিদ্ধ করা নিয়ে সোশ্যাল সাইটে মুখ খুলেছেন আলোচিত সমালোচিত নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

নির্বাসিত এই লেখিকা লিখেছেন, ‘শ্রীলঙ্কা বোরকা নিষিদ্ধ করেছে, জনমানুষের নিরাপত্তার জন্য। বোরকা পরে আত্মঘাতী বোমা হেঁটে বেড়াচ্ছে, আর আমরা তাকে নিরীহ মেয়েমানুষ ভেবে তার আশে পাশে নিরাপদ বোধ করছি, এই বোকামোর দিন শেষ হয়েছে। বোরকা কয়েক ধরণের মানুষ পরে: ১. দোযখে যাওয়ার ভয়ে ধর্ম দ্বারা মগজধোলাই হওয়া মেয়ে। ২. আত্মীয় স্বজনের চাপে বাধ্য হওয়া মেয়ে। ৩. আত্মঘাতী বোমা। ৪. জেল পালানো দাগী আসামি। ৫. ক্রিমিনাল, যার বিরুদ্ধে হুলিয়া জারি হয়েছে। ৬. চোর এবং ৭. ডাকাত।’

!-- Composite Start -->
Loading...

‘বোরকা পৃথিবীর সব জায়গায় নিষিদ্ধ হওয়া উচিত। বোরকা নিষিদ্ধ হওয়ার পর মেয়েরা মানুষের অধিকার নিয়ে চলাফেরা করতে পারবে, চলমান কারাগারের ভেতর মেয়ে হয়ে জন্ম নেওয়ার শাস্তি ভোগ করতে হবে না, নামপরিচয়হীন অবয়বহীন একটি ভূতুড়ে জীবন যাপন করতে হবে না। মেয়েদের জন্য এর চেয়ে বড় সুখবর আর কী হতে পারে! যে মেয়েরা বলে বোরকা পরতে তাদের ভালো লাগে, বা এটা তাদের মানবাধিকার- তারা মগজধোলাই হওয়ার কারণে বলে।’

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.