সাপাহারে স্বামীর সহযোগীতায় গৃহবধু গণধর্ষণ! গ্রেফতার-২

39

নয়ন বাবু, নওগাঁ : নওগাঁর সাপাহারে স্বামীর সহযোগীতায় কিশোরী গৃহবধু (১৭) গণধর্ষণের ঘটনায় দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, উপজেলার করমুডাঙ্গা বলদিয়াঘাট গ্রামের বাবলুর ছেলে সুমন ওরফে ভোগা (১৯) ও মৃতঃ আব্দুস সালামের ছেলে আহাদ আলী (৩০)। মামলার এজাহার ভুক্ত ৩ নং আসামী করমুডাঙ্গা চৌমুহনী গ্রামের খেরো মিয়ার ছেলে গুধা (২৮) এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত ১৯ মে উপজেলার পাতাড়ী ইউনিয়নের করমুডাঙ্গা এলাকায় নিজ স্বামীর সহযোগীতায় এক কিশোরী গৃহবধু (১৭) কে তিনজন মিলে গণধর্ষণ করে। ধর্ষকদের সাথে ওই গৃহবঁধুর স্বামীর রাজমিস্ত্রী কাজের সুবাদে পরিচয় ঘটে। এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার রাতে স্বামীকে টাকা দিয়ে তারই সহযোগীতায় একটি বাড়ীর রান্না ঘরের পাশের খড়ের গাদার উপর ফেলে ওই গৃহবঁধু কে আসামীরা গণ ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর ওই গৃহবধুকে ফেলে তারা পালিয়ে যায় । কিশোরী গৃহবঁধুর মা বিষয়টি জানতে পেরে থানায় তিন জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় ২৬ মে থানা পুলিশ দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার জানান, এজাহারভুক্ত তিন আসামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তিন নং আসামী পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা যায়নি তবে আটকের প্রক্রিয়া ও তদন্ত অব্যহত রয়েছে বলেও ওসি জানান।