শেষ হল উই সামিট ২০২১

87


দেশের নারী উদ্যোক্তাদের জনপ্রিয় সংগঠন উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের (উই) আয়োজনে ‘উই সামিট ২০২১’-এর সফল সমাপনী হয়েছে গতকাল। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে সারা দেশ থেকে আসা উইয়ের হাজারের অধিক উদ্যোক্তার অংশগ্রহণে সামিটের বিভিন্ন সেশানে অতিথিরা নারীর ক্ষমতায়নের অংশ হিসেবে নারীকে স্বাবলম্বী করে তুলতে আরো বেশি প্রান্তিক পর্যায়ে কাজের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উই সামিটে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫০ জন সফল নারী উদ্যোক্তাকে ‘জয়ী’ অ্যাওয়ার্ডে সম্মানিত করা হয়।

সমাপনী দিনের আয়োজনে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের মন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী একেএম মোজাম্মেল হক, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকি, বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর খাজা শাহরিয়ার, সিল্কক গ্লোবালের প্রেসিডেন্ট ও সিইও সৌম্য বসু, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. মনিরুল ইসলাম, উইয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা।

আরো উপস্থিত ছিলেন আকিজ ভেঞ্চার লিমিটেডের এমডি ও সিইও সৈয়দ আলমগীর, আইসিটি ডিভিশনের সিনিয়র সেক্রেটারি এনএম জিয়াউল আলম পিএএ, সংসদ সদস্য তামান্না নুসরাত বুবলী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আজ বাংলাদেশের নারীর ক্ষমতায়নে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল উই। আমি অবাক হয়েছি আমাদের প্রান্তিক পর্যায়ের নারীদের সফলতার এ কথা জেনে, আমাদের সরকার আরো বেশি করে আপনাদের সহযোগী থাকবে।

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের এমডি খাজা শাহরিয়ার বলেন, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড এ আয়োজনের মাধ্যমে আপনাদের পাশে থাকার সুযোগ পেয়ে আনন্দিত। নারী উদ্যোক্তাদের জন্য আমাদের পক্ষ থেকে থাকবে সর্বাত্মক সহযোগিতা।

আয়োজনটির মূল পার্টনার প্রতিষ্ঠান হিসেবে ছিল লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড, শিখা। গোল্ড পার্টনার ছিল পেপারফ্লাই, সিলভার পার্টনার ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ ও এইচ২ও বিউটি ফিটনেস স্টুডিও।



Source link