শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বদলে গেছে বাংলাদেশ-ড. হাছান মাহমুদ

108

মোবাশ্বের আলম
ভোলা জেলা প্রতিনিধিঃ

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন,উন্নয়নের আইকন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বদলে গেছে বাংলাদেশ। সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডে বদলে গেছে মানুষের ভাগ্য। এখন আর ‘বাসি ভাত দেন’ এ কথা শোনা যায়না, ছেড়া কাপড় বা খালি পাে মানুষ দেখা যায় না। কুড়ে ঘর খুঁজে পাওয়া যায় না। এটাই হলো বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এটি সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারনে।
শনিবার (১৮ সেপ্টম্বর) ভোলার চরফ্যাশনে সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ২৯ তম মৃত্যু বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপি’র মধ্যরাতের সিরিজ মিটিংয়ের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, তারা বলে আ’লীগ সরকারের অধীনে তারা নির্বাচনে যাবে না, কিন্তু কোন সরকারের অধীনে কখনই নির্বাচন হয়না, নির্বাচন হয় নির্বাচন কমিশনের অধীনে। টেলিভিশনে যারা বড় বড় কথা বলে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখেন। তাদের সেই স্বপ্ন কোন দিন বাস্তবায়ন হবে না। সংবিধান অনুয়ায়ি নির্বাচনকালীন সময়ে নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন হবে। সুতারাং মিথ্যা স্বপ্ন দেখে লাভ নেই। শেখ হাসিনা সরকার, এদেশে বার বার দরকার।
তিনি জনগনকে সতর্ক করে বলেন, নির্বাচন এলেই শীতের অতিথি পাখিরা আসে, তারা ভোট চায়, কিন্তু তারা এলাকায় থাকেও না, উন্নয়ন করে না। তাই অতিথি পাখিদের নির্বাচনে ভোট চাইতে এলে তাদের ফিরিয়ে দিবেন।
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আরো বলেন, শেখ হাসিনা সরকার সমগ্র দেশের উন্নয়নে বিশ্বাষ করে। যে কারনে দেশের প্রতিটি প্রান্তে উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। সমগ্র দেশের উন্নয়নের মধ্যেই জাতী ও রাষ্ট্রের উন্নয়ন হয়। আর তাই দেশের প্রতিটি প্রতিটি প্রান্তে যেন উন্নয়ন ছোঁয়া সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে সরকার।
তিনি আরো বলেন, চরফ্যাশন উপজেলা প্রকৃতিক সৌন্দয্য দেখে আমি মুগ্ধ, এখানে সারাদেশ থেকে পর্যটকরা আসেন। দেশের অনান্য অঞ্চলের মত চরফ্যাশনেও উন্নয়ন হয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ হওয়ার কারনে সব কিছুই এখন হাতের নাগালে। এখন সুদুর কুকরী-মুকরি থেকেও অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিও আবেদন করা যায়, কৃষকরা ক্ষেতে বসেই কর্মকর্তাদেও সাথে বলে সমাধান পাচ্ছেন।
অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের আয়োজনে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন, ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব। সভাপতিত্ব করেন কায়সার আহম্মেদ দুলাল। জেলা প্রশাসক তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরকার মো: কায়সার।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এর আগে সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের কবল জিয়ারত শেষে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিদর্শন করেন। দৃষ্টিনন্দন শেখ রাসেল শিশু ও বিনোদন পার্ক, জ্যাকব টাওয়ার ও ফ্যাশন স্কয়ার পরিদর্শন করেন। এছাড়াও ভোলা ও চরফ্যাশন উপজেলার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।