শেকৃবিতে বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে ‘দ্য ইয়ুথ টক’ অনুষ্ঠিত

147


শেকৃবি করেসপন্ডেন্ট

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে হয়ে গেল ‘দ্য ইয়ুথ টক: বাংলাদেশে খাদ্য ও কৃষির ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক অনুষ্ঠান। এই আয়োজনে একাডেমিক অনুষদ ও এফএও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা ও বিতর্কের মাধ্যমে বাংলাদেশে কৃষিকাজের জন্য ভবিষ্যতের পথ খোঁজার চেষ্টা করেছেন তরুণরা।

বৃহস্পতিবারের (২১ অক্টোবর) এই আয়োজনে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী, অনুষদ সদস্য ও এফএও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে খাদ্য উৎপাদন খাতে কৃষি মন্ত্রণালয়, এফএও ও শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ কৃষি নেতা হিসেবে চ্যালেঞ্জ ও করণীয়গুলোও চিহ্নিত করা হয়।

শেকৃবিতে বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে ‘দ্য ইয়ুথ টক’ অনুষ্ঠিত

ইন্টার‌্যাকটিভ সেশনের মাধ্যমে তরুণ অংশগ্রহণকারীরা কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে চিহ্নিত করেন। এর মধ্যে নীতিমালা নির্ধারণে তরুণদের সম্মিলিতভাবে নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে তরুণদের সম্পৃক্ততার অভাব বাংলাদেশের কৃষির ভবিষ্যতের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে একমত পোষণ করেন।

‘ইয়ুথ টকে’ গ্রুপ আলোচনা থেকে শুরু করে বাদ্যযন্ত্র ও কবিতা পরিবেশনাসহ বেশ কয়েকটি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ ১০ থেকে ২৪ বছর বয়সী তরুণ নিয়ে গঠিত। অতএব এটি স্পষ্ট যে কেবল কৃষিকাজের ক্ষেত্রেই নয়, বরং বাংলাদেশের ভবিষ্যতই এখন তাদের হাতে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, খাদ্য ও কৃষি সংস্থার ডেপুটি রিপ্রেজেনটেটিভ বাখোদুর ইশোনভ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শেকৃবি’র কৃষি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. পরিমল কান্তি বিশ্বাস ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন শেকৃবি’র অ্যানিমেল সায়েন্স অ্যান্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. লাম-ইয়া-আসাদ।

সারাবাংলা/টিআর





Source link