শিবশক্তি পীঠের পুরোহিতের ওপর হামলা, ট্রাম্পের প্রভাব খতিয়ে দেখছে পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্র যাদের ভালো লাগছে না, তারা এখনই এই দেশ ছেড়ে যাক। টুইটারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওই বার্তার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই নিউইয়র্কে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পুরোহিতের ওপর হামলা চালান এক ব্যক্তি।
গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় স্বামী হরিশচন্দ্র পুরী নামে ওই পুরোহিতকে। পুলিশ বলছে, গ্লেন ওকস-এর কাছে শিবশক্তি পীঠ মন্দিরে পুরোহিত ছিলেন তিনি।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা নাগাদ হেঁটে মন্দিরে যাচ্ছিলেন পুরী। সেই সময় হঠাৎ করেই এক ব্যক্তি পেছন থেকে তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। পুরীর মুখে-পেটে ও সারা শরীরে আঘাতের পর আঘাত করতে থাকেন ওই ব্যক্তি। তার পর সেখান থেকে পালিয়ে যান।
সাধারণ মানুষ পুরীকে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। তার হাতে, মুখে এবং শরীরের অন্যান্য অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
পুলিশ এরই মধ্যে ৫২ বছর বয়সী হামলাকারীকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করেছে। জানা গেছে, সের্গিও গৌভিয়া নামে ওই ব্যক্তি হামলা চালিয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, হামলা চালানোর আগে ওই ব্যক্তি চিৎকার করে বলেছেন এটা আমার দেশ। সে কারণে ওই হামলার পেছনে কোনো বিদ্বেষমূলক অপরাধের যোগ আছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.