রোহিঙ্গাদের চাপে কক্সবাজার মেডিকেলে করোনার নমুনা পরীক্ষায় জট

0
295

প্রতিদিন শত শত রোহিঙ্গার নমুনার চাপে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইইডিসিআরের ফিল্ড ল্যাবে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষায় জট লেগেছে। এছাড়া জনবল সংকট, ঈদের ছুটি, বান্দরবান ও চট্টগ্রামের বড় দুটি উপজেলাকে এই ল্যাবে সম্পৃক্ত করে দেওয়াসহ আরও বিভিন্ন কারণে এ জট সৃষ্টি হয়েছে।

কক্সবাজার ল্যাবের সংশ্লিষ্টরা জানান, আইইডিসিআরের ফিল্ড ল্যাবে সক্ষমতা আছে প্রতিদিন ৩০০ নমুনা পরীক্ষা করার। এই ল্যাবের ওপর পুরো কক্সবাজার ও বান্দরবানের দায়িত্বও রয়েছে। এর মধ্যে শুধু রোহিঙ্গা আর চট্টগ্রামের লোহাগাড়া ও সাতকানিয়া উপজেলা থেকে প্রতিদিন ৪০০ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে জমা হচ্ছে। যত বেশি কোভিড-১৯ পজিটিভ পাওয়া যাচ্ছে তত বেশি নমুনা আসছে পরীক্ষার জন্য।

কক্সবাজারে বর্তমানে একটি পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। ৪ দিন আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) আরেকটি ল্যাব স্থাপন করে দিয়েছে। কিন্তু জনবল না থাকায় ওই ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার কাজ চালু করা যাচ্ছে না।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া জানান, বিশাল রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর চাপ, আবার বান্দরবান ও চট্টগ্রামের বড় দুটি উপজেলা কক্সবাজার ল্যাবে সম্পৃক্ত করা, জনবলের কিছুটা সংকট, ঈদের ছুটি ইত্যাদি কারণে নমুনা পরীক্ষায় সামান্য জট লেগেছে।

চট্টগ্রামে আরও চারটি ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা সুবিধা সম্প্রসারিত হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর বাইরে আরও কয়েকটি ল্যাব হওয়ার কথা রয়েছে। বান্দরবানের কয়েকটি উপজেলা এবং লোহাগাড়া ও সাতকানিয়াকে চট্টগ্রামের সঙ্গে যুক্ত করলে কক্সবাজারের ল্যাবে নমুনার জট কমে যাবে।

মতামত

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে