রেস্টুরেন্টের মালিক বাপ্পার সফলতার গল্প

0
79


তরুণ সমাজের নতুন নতুন চিন্তাভাবনা এবং সঠিক পদক্ষেপ গুলোর সমন্বয়ে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। বাড়ছে কর্মসংস্থান, মাথাপিছু আয় এবং অনেকে হচ্ছেন স্বাবলম্বী।

তরুণদের মধ্যে আজ আমরা একজনের কথা জানবো, যিনি শুরুতে একটি ছোট্ট ফুডকার্ট থেকে ব্যবসা শুরু করেছিলেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের ১০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী মনু মোহন বাপ্পা। একটি ছেট্ট ফুডকার্ট থেকে আজ তিনি একটা রেস্টুরেন্টের মালিক। যখন শুরু করেছিলেন তখন বাপ্পা রাস্তার পাশে দাড়িঁয়ে বিক্রি করতেন বার্গার, স্যান্ডুইচ। জিবনের অনেক চড়াই উতরাই পার হয়ে আজ তিনি একজন সফল উদ্যোক্তা।

রাজশাহী জেলার পাঠানপাড়া মুক্তমঞ্চ সংলগ্ন এলাকায় তার রেস্টুরেন্ট গড়ে তুলেছেন। রেস্টুরেন্টের নাম ‘রেইনবো এ্যান্ড টি টাইম’। এ রেস্টুরেন্টে পাওয়া যায় বার্গার, স্যান্ডুইচ, চিকেন ফ্রাই, নুডুলস, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, জুস এবং নানান স্বাধের চা সহ বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুড।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়ার পরে টিউশনি করিয়ে নিজের খরচ চালাতেন। কিন্তু সেটাতে স্বাধীনতা না থাকায় তিনি ব্যাবসা করার সিদ্ধান্ত নেন। জমানো কিছু টাকা দিয়ে একটি ছোট্ট প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন, তার নাম ‘সাতরং ফ্যাশন’।

শুরুতে অনলাইনে টিশার্টের ব্যবসা শুরু করেন। শুরুটা এভাবেই করেছিলেন। এরপর ২০১৮ সালের দিকে একটি ফুডকার্ট কিনে ফেলেন। ক্যাম্পাসের পশ্চিমপাড়ার দিকে ‘রেইনবো ফুডিস’ নামে ফুডকার্টে খাবার বিক্রি শুরু করেন।

সাতরং ফ্যাশন এবং রেইনবো ফুডিস দুটোই বেশ ভালো চলছিলো এবং অনেক আয়ও করেছেন সেখান থেকে। তার স্বপ্ন ছিলো রেস্টুরেন্ট দেয়ার। তাই তিনি ২০২০ সালের শুরুতে রেস্টুরেন্ট দিলেন। তবে করোনা মহামারিতে বেশ কিছু লোকসান হওয়ায় রেস্টুরেন্ট বন্ধ করতে হয়েছে। কিন্তু থেমে থাকেননি বাপ্পা। স্বপ্নকে সত্যি করার লক্ষে তিনি বেশ কিছু টাকা জমিয়ে আবারো দার করান ‘রেইনবো ফুডিস এন্ড টি টাইম’। বর্তমানে রেস্টুরেন্ট বেশ ভালো চলছে।

ভবিষ্যতে রেস্টুরেন্ট বড় করা নিয়ে এবং রাজশাহীতে একটি আর্ট গ্যালারী করা নিয়ে কাজ করার ইচ্ছে তার। দৃঢ় মনোবল এবং অদম্য ইচ্ছেশক্তি থাকলে শত বাধা বিপত্তি আসলেও যেকোন কিছুই করা সম্ভব তা বাপ্পার জীবন থেকেই তা প্রমান পাওয়া যায়।
খায়রুন্নাহার পিংকি
কন্টেন্ট রাইটিং ডিপার্টমেন্ট, ইন্টার্ন,
ওয়াইএসএসই

 



Source link