রিমান্ড শেষে হেফাজত নেতা মুফতি শরিফউল্লাহ কারাগারে

0
69

ঢাকা, ১৬ এপ্রিল – হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রচার সম্পাদক মুফতি শরিফউল্লাহর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে আদালত। রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকায় ২০১৩ সালে পুলিশ সদস্যদের হত্যার চেষ্টা এবং নাশকতার মামলায় তাকে আজ কারাগারে পাঠানো হয়।

আজ শুক্রবার এক দিনের রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। অপর দিকে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আরও পড়ুন : মতিন খসরুর প্রতি শ্রদ্ধায় বসবে না সুপ্রিম কোর্ট

এরআগে, বুধবার তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। পুলিশকে হত্যার উদ্দেশে করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় সুষ্ঠুতদন্তের জন্য তার বিরুদ্ধে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন যাত্রাবাড়ি থানার পরিদর্শক আয়ান মাহমুদ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যাত্রাবাড়ির মীর হাজিরবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) ওয়ারী বিভাগ।
২০১৩ সালের ৫ মে ভোরে ঢাকা অবরোধ করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা যাত্রাবাড়ি থানার ডব্লিউ জেট ফিলিং ষ্টেশনের বিপরীত দিকে রাস্তার উপর কদমতলী থানার কাজে ব্যবহৃত ঢাকা মেট্রো-ঠ- ১৪-১৭০৫ পুলিশ পিকাপে অগ্নি সংযোগ এবং পুলিশের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়।

ওইদিন সকালে একই থানার রায়েরবাগস্থ ইউনাইটেড পেট্রোল পাম্পের সামনে আসামি শরীফুল্লাহসহ অন্য আরও ৪শ’ থেকে ৫শ’ জন হঠাৎ পুলিশের গাড়ির উপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে এবং গাড়িতে অবস্থানকারী ফোর্সদের হত্যার উদ্দেশ্যে ইট পাথর, লোহার রড, পাইপ ইত্যাদি দিয়ে আঘাতের চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ সদস্যরা পালিয়ে প্রাণ রক্ষা করে। এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে যাত্রাবাড়ি থানায় একটি মামলা করা হয়। এ মামলায় এজাহারভূক্ত আসামি মুফতি শরিফউল্লাহ।

সূত্র : একুশে
এন এইচ, ১৬ এপ্রিল

Source link