রাহুল-মমতার দিন শেষ, বাংলাদেশের হিন্দুরা ভারতে আশ্রয় পাবেনঃ অমিত শাহ্

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে হিন্দু শরণার্থীরা ভারতে এলে আশ্রয় পাবেন বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ারে নির্বাচনী জনসভায় বক্তৃতাকালে এ কথা জানান তিনি।

অমিত শাহ বলেন, সব হিন্দু শরণার্থীদের সম্মানের সঙ্গে ভারতের মাটিতে থাকতে দেওয়া হবে। ভারতে বৈধ নাগরিকদের ভয়ের কোনও কারণ নেই। তারা সম্মানের সঙ্গে থাকতে পারবেন। পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আমাদের প্রতিশ্রুতি।

!-- Composite Start -->
Loading...

এ সময় তিনি দাবি করেন, লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে ২৩টি আসন পাবে বিজেপি। পশ্চিমবঙ্গে নতুন দিন, নতুন সকাল নিয়ে আসবেন নরেন্দ্র মোদি। বক্তব্যের শুরুতেই আক্রমনাত্বক অমিশ শাহ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জীকে তীব্র আক্রমণ করে বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন মমতা।

পাকিস্তানকে সর্তক করে তিনি বলেন, পাকিস্তানের দিক থেকে গুলি এলেই এদিক থেকে জবাব দেওয়া হবে। ইটের জবাব পাথরে দেওয়া হবে। পুলওয়ামায় জওয়ানদের মৃত্যুর বদলা নিতে ভারত বদ্ধপরিকর। অথচ পাকিস্তানকে জবাব দেওয়ার ক্ষেত্রে সর্বদাই না বলে চলেছেন মমতা দিদি।

অমিত শাহ বলেন, গত পাঁচ বছরে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন প্রকল্পের হিসাব বাংলার মানুষকে দিতে এসেছি আমি। কোনও মমতা ব্যানার্জী, কোনও রাহুল গান্ধীকে হিসাব দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি আক্রমণ করে অমিত শাহ বলেন, মমতা দিদি আপনি বলুন, গরীবদের জন্য আপনি কি করেছেন? ইমামদের ভাতা দিচ্ছেন, অথচ পুরোহিতদের ভাতা দিচ্ছেন না কেন? বাংলার মাটিতে গণতন্ত্র থাকবে কিনা তা ঠিক করবে এই ভোট।

মমতাকে উদ্দেশ্য করে অমিত শাহ আরও বলেন, বাংলায় আপনার সময় শেষ মমতা দিদি। বাংলায় এবার ২৩টি আসন জিতবে বিজেপি। একদিকে পরাক্রমী মোদি, অন্যদিকে দুর্বল জোট। এখন শেকড় শুদ্ধ তৃণমূলকে উপড়ে ফেলার সময় এসেছে। যে বাংলায় এক সময় রবীন্দ্রনাথের গান, চৈতন্যদেবের কীর্তন শোনা যেতো সেখানে এখন বোমার আওয়াজে ভরে উঠেছে। বাংলায় গণতন্ত্র ও সংস্কৃতিকে ধ্বংস করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবারে তৃণমূলের হার নিশ্চিত।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.