যৌন হয়রানির দায়ে চট্টগ্রামে শিক্ষকের গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা শিক্ষার্থীদের

চট্টগ্রাম অফিস : ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চট্টগ্রামের (ইউএসটিসি) ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন একদল শিক্ষার্থী। বিক্ষোভকালে অভিযুক্ত শিক্ষককে অফিস থেকে বের করে গায়ে কেরোসিন ঢেলে দেন তারা।

গত মঙ্গলবার দুপুরে ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির খুলশী ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

!-- Composite Start -->
Loading...

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার দিলীপ কুমার বড়ুয়া বলেন, কিছু শিক্ষার্থী অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদকে প্রকাশ্যে অফিস থেকে টেনে বের করে গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়েছে। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য চরম অপমানজনক ঘটনা। আমরা পুলিশকে খবর দিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় ব্যবস্থা নেবে।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রনব চৌধুরী বলেন, শিক্ষককে লাঞ্ছনার অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। ইউএসটিসির উপাচার্যসহ বৈঠকে বসেছেন শিক্ষকরা। এর আগে শিক্ষার্থীদের একটি দল শিক্ষককে লাঞ্ছনার পর ফয়’স লেকের সামনে সড়কে অবস্থান নেন। সেখানে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন তারা। এ সময় যানবাহন আটকা পড়ে দুই পাশে যানজটের সৃষ্টি হয়। পুলিশ এসে রাস্তা থেকে শিক্ষার্থীদের সরিয়ে দিয়েছে। তবে ক্যাম্পাসের ভেতরে এখনও মিছিল হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চট্টগ্রামের (ইউএসটিসি) ইংরেজি বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা বেশ কিছুদিন ধরে শ্রেণিকক্ষে ওই শিক্ষকের কাছ থেকে ক্রমাগত যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার অভিযোগ করেছে আসছিলেন। গত ২৯ এপ্রিল ইউএসটিসির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদের বিরুদ্ধে আনা যৌন নিপীড়নের অভিযোগ সত্য নয়।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.