যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ৮টি টর্নেডোর আঘাত, বন্যায় নিহত ৪৬

41


আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরপূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকায় হ্যারিকেন আইডার প্রভাবে ৮টি টর্নেডো আঘাত হেনেছে। এছাড়া ভারী বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট নজিরবিহীন বন্যায় এ পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

বিবিসির খবরে বলা হয়, বন্যায় ভবনে আটকা পড়েছেন বাসিন্দারা। নিউজার্সির গভর্নর ফিল মার্ফি জানিয়েছেন, তার রাজ্যে কমপক্ষে ২৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নিহতদের বেশিরভাগই ভবনের পার্কিংয়ে রাখা গাড়িতে আটকা পড়েছিলেন। দ্রুত পানির স্তর বেড়ে যাওয়ায় তারা আর বের হতে পারেননি।

নিউইয়র্ক শহর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বন্যায় দুই বছরের এক শিশুসহ কমপক্ষে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিউইয়র্কে নিহতদের ১১ জনই ভবনের নিচতলায় আশ্রয় নিয়েছিলেন, তবে বন্যার পানি তাদের ভাসিয়ে নিয়ে গেছে।

নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাসিও বলেছেন, স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন তারা।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস জানিয়েছে, নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে ঘণ্টায় ৩.১৫ ইঞ্চি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। অবিরাম বৃষ্টিপাতের কারণে শহরের যোগোযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থার পাশাপাশি বৈদ্যুতিক পরিষেবা অচল হয়ে পড়েছে।

এছাড়া পার্শ্ববর্তী ফিলাডেলফিয়া রাজ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আকস্মিক বন্যায় এ পর্যন্ত তিন জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। পেনসিলভানিয়ায় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই রাজ্যে এ পর্যন্ত অন্তত ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে হ্যারিকেন আইডা স্থলে আঘাত হানার পর কমপক্ষে  ৮টি টর্নেডো উত্তরপূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকায় তাণ্ডব চালিয়েছে। পেনসিলভানিয়ার আবহাওয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই রাজ্যে ঘণ্টায় ১৩০ মাইল গতিতে কমপক্ষে চারটি টর্নেডো বয়ে গেছে।

নিউজার্সিতে কমপক্ষে তিনটি এবং ম্যাসাচুসেটসে একটি টর্নেডোর আঘাত নিশ্চিত করেছে রাজ্য কর্তৃপক্ষ। তবে এসব টর্নেডোর আঘাতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও নিরূপণ করা যায়নি।

সারাবাংলা/আইই





Source link