মুসলিম হত্যার প্রতিবাদকারীদের আটক করতে অভিযানে ভারতীয় পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের ঝাড়খণ্ডে হিন্দুত্ববাদী স্লোগান দিতে বাধ্য করার পর মুসলিম যুবক তাবরেয আনসারীকে হত্যার ঘটনায় ব্যাপক বিক্ষুদ্ধ ভারতীয় মুসলমানরা।
ঘটনার দু’সপ্তাহ পরও এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এখনও ভারতের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ চলছে। তবে গুজরাট,সুরাটসহ কয়েকটি এলাকায় মুসলমানদের প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশের পক্ষ থেকে হামলা চালানোর খবর পাওয়া গেছে। পাশাপাশি মুসলিম যুবকদেরও গ্রেফতার করা হয়েছে।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটিন উর্দূর খবরে বলা হয়, শুক্রবার সুরাটের নানপুরা এলাকায় বিক্ষোভরত মুসলমানদের সঙ্গে পুলিশ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেলের পাশাপাশি কয়েক রাউন্ড গুলিও চালানো হয়েছে।
সুরাট পুলিশের মুখপাত্র নিউজ এইটিনকে জানান, তাবরেয আনসারী হত্যার প্রতিবাদে শুক্রবার স্থানীয় মুসলমানদের একটি সংগঠন বিক্ষোভ মিছিলের অনুমতি চেয়েছিল। কিন্তু পুলিশ তাদের অনুমতি দেয়নি। কারণ হিসেবে তারা জানিয়েছেন, তাবরেযের হত্যাকাণ্ড সুরাট বা গুজরাটে ঘটেনি। তাই এখানে বিক্ষোভের কোনো প্রয়োজন নেই।
পরে পুলিশের অনুমতি ছাড়াই শুক্রবার ওই সংগঠনটি মিছিল বের করে। এতে বিপুলসংখ্যক মুসলিম যুবক অংশ নেয়।
বিক্ষোভকারীদের পুলিশ বাধা দিলে একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ব্যাপক টিয়ারশেল ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় বেশ কয়েকজন মুসলিম যুবককে আটক করা হয়েছে।
পুলিশের দাবি, মুসলমানদের ছোড়া ইটপাটকেলে ৪ পুলিশ আহত হয়েছে।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.