মা হতে চাইছেন? পুষ্টি নিয়ে তাহলে একটু ভাবুন

0
101

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রেগন্যান্সি একেবারেই একটা বৈজ্ঞানিক ব্যাপার। এবং ঠিক সময়ে ঠিক ভাবে গর্ভধারণ করতে গেলে শুধু সেই বিজ্ঞানের দিকটাকে দৈনন্দিন জীবন যাপনের সঙ্গে একটু যুক্ত করে নিলেই চলবে।

সাধারণত যেসব মহিলা মা হতে চান তাঁদের এমন খাবার খেতে হবে দেখতে হবে তাতে যেন প্রচুর পরিমাণে ফলিক অ্যাসিড, ভিটামিন B-12, Omega-3 ফ্যাটি অ্যাসিড ইত্যাদি থাকে। কনসিভ করার ক্ষেত্রে আগ্রহীদের পুষ্টিবিশারদ মামি আগরওয়াল কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।

হেলদি ডায়েট– খাবারে তাজা ফল, সবজি দানাশস্য রাখতেই হবে। এই সময়টায় প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট খেতে হবে। জিঙ্ক বা ফলিক অ্যাসিড আছে এমন খাবার খেতে হবে। সাধারণত বিন, মটরশুটি, শাকপাতায় প্রচুর পরিমাণে ফলিক অ্য়াসিড পাওয়া যায়। এগুলি খাদ্যতালিকায় রাখতে হবে। শরীরে নতুন কোষ তৈরি হতে সহায়তা করে এগুলি। এই সময়টা ক্যাফিন থেকে দূরে থাকতে হবে। ক্যাফিন প্রেগন্যান্সি দূরে ঠেলে দেয়।

আরও পড়ুন: ঠোঁটের রঙে জানতে পারবেন, কতটা সুস্থ আছেন আপনি

ওবেসিটি নিয়ন্ত্রণ– শরীরে বিপাকক্রিয়ার গতি স্বাভাবিক রাখতে হবে। ওভারওয়েট বা আন্ডারওয়েট কোনওটাই কাজের কথা নয়। কেননা ওজনের অস্বাভাবিকতা সরাসরি ওভিউলেশনে প্রভাব ফেলে।

স্মোকিং ও ড্রিঙ্কিংয়ে না–সুস্থ ভাবে গর্ভধারণ করতে গেলে ধূমপান ও মদ্যপান থেকে বিরত থাকতে হবে। প্রজননের উপরে একটা নেতিবাচক প্রভাব ফেলে এগুলি।

ব্য়ায়াম– নিয়মিত ব্যায়ামের অভ্য়েস তৈরি করে তুলতে হবে। এতে শরীরে হরমোনের ভারসাম্য বজায় থাকে। যোগা তো আছেই। করা চলে হালকা জগিং, সাইক্লিং। 

সুনিদ্রা– নানা রকম সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই সময়-পর্বে ভাল ঘুমোতেই হবে। ‘লো কোয়ালিটি স্লিপ’ মানে ‘লেসার ফার্টিলিটি রেট’। 

মোটামুটি এই বিষয়গুলি একটু মেনে চললেই সুস্থ ভাবে গর্ভধারণ করা সম্ভব হবে। 

আরও পড়ুন: ত্বককে সতেজ রাখতে রোজ ৫টি কুল, পরামর্শ পুষ্টিবিদদের

Source link