মানুষের কল্যানে কাজ করতে চান, ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী উজ্বল

0
195

গৌতম চন্দ্র বর্মন,ঠাকুরগাঁওঃ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানার ১৪ নং রাজাগাঁও ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের একজন বাসিন্দা।এমনকি একজন তরুন সমাজসেবক হিসেবেও বেশ পরিচিত । জনগণের পাশে থেকে কাজ করার প্রত্যয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ১৪নং রাজাগাঁও ইউনিয়নে নির্বাচন করবেন।এমনকি  জনগণের সেবা করার জন্যই চেয়ারম্যান নির্বাচন করবেন। ইউপি নির্বাচনী বিষয় নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে উজ্জ্বল কুমার রায় এসব কথা বলেন৷

জানা গেছে, এলাকায় রয়েছে উজ্জ্বলের ব্যাপক পরিচিত। তিনি একজন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবেও পরিচিত। শুধু তাই নয়, অসহায় দরিদ্রের বন্ধু বলেও সবার মাঝে পরিচিত। যে কোন সামাজিক কাজে ছুটে আসেন তিনি৷ এমনকি ভালো কাজকে হ্যা এবং খারাপ কাজকে না বলে থাকেন৷ সবসময় ন্যায়ের পক্ষে এবং অন্যায়ের বিপক্ষে কথা বলেন তিনি৷

এভাবেই মানুষের পাশে থাকার কারনে ধীরেধীরে বাড়তে থাকে সমাজে তার জনপ্রিয়তা৷ জনগণের একটাই কথা তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে পাল্টে যাবে এই রাজাগাঁও ইউনিয়নের চিত্র। রাজাগাঁও  হবে মডেল ইউনিয়ন। আরও থাকবে না রাস্তাঘাটের ভোগান্তি। এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সর্বক্ষণিক নাগরিকত্ব সেবা পাবে জনগণ।

রাজাগাঁওবাসী জানিয়েছেন, অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে একজন প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর। কোন অনিয়ম দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেন না তিনি। এমনকি মাদকের বিরুদ্ধে সবসময় কঠোর৷ তরুণ ও যুবসমাজ যেন মাদকের ভয়াবহ ছোঁবলে না পড়ে সেজন্য রাজাগাঁওয়ের বিভিন্ন এলাকায় যুব ও তরুণদের নিয়ে মতবিনিময় করে থাকেন৷

সবমিলিয়ে উজ্জল কুমার রায়কে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চান স্থানীয়রা। তবে এখন সময়ের অপেক্ষায় রয়েছে রাজাগাঁও ইউনিয়নবাসী।এমনকি দলীয় মনোনয়ন দিলে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের ক্ষেত্রেও তিনি অনেকটাই আলোচিত বলে জানা গেছে৷নির্বাচনের ভোটের মধ্য দিয়ে উজ্জ্বলের বিজয় নিশ্চিত হবে বলেও জানান এলাকাবাসী।

অন্যদিকে অসহায় দরিদ্ররা অর্থের অভাবে চিকিৎসা নিতে না পারায় তিনি তাদের পাশে থেকে নিজ সাধ্যমত চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে থাকেন৷ এমনকি মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের মাঝে সাধ্যে অনুযায়ী পুরস্কারও দিয়ে থাকেন তিনি৷ রাজাগাঁও ইউনিয়নবাসীর সবার মুখে এখন তারই কথা।

রাজাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী উজ্জ্বল কুমার রায় বলেন, জনগণ চাচ্ছে বলেই আমি নির্বাচন করতে ইচ্ছে প্রকাশ করেছি। কারন জনগণের ভোট ছাড়া অামি নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারবো না৷ তাই জনগণের সিদ্ধান্তই আমার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষ জাতি হিসেবে অন্যদের পাশে থেকে তাদের সেবা করাটা আমাদের দায়িত্ব। আগামীতে  আমি ইউপি নির্বাচন করবো শুধু জনগণের জন্য। বিগতদিন থেকেই স্বপ্ন ছিল জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের পাশে থাকবো৷ তাই সকলের চাওয়ায় অামি নির্বাচন করবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সবাই আমার জন্য দোয়া ও আর্শীবাদ করবেন৷