মানসিক রোগ সারতে কবিরাজের নির্দেশে মানুষ বলী

প্রতিবেশী ডেস্কঃ মানসিকভাবে অসুস্থ সন্তানদের সুস্থ করতে কবিরাজের নির্দেশ দুটি ষাঁড় অথবা কোনো মানুষকে বলি (কোরবানি) দিতে হবে। তবে শেষ পর্যন্ত দুটি ষাঁড় জোগার করতে না পেরে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরকে বলি দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের এক প্রত্যন্ত গ্রামে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

!-- Composite Start -->
Loading...

ভারতীয় দৈনিক হিন্দুস্তান টাইমস এক অনলাইন প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে। স্থানীয় আশান্দারা থানার স্টেশন হাউস অফিসার অক্ষয় কুমার বলেন, ‘থারপুর গ্রামের একটি পরিবার মানসিকভাবে অসুস্থ তাদের সন্তানদের বাঁচাতে এক কবিরাজের কাছে গেলে তাদের এমন ‘দাওয়া’ দেন তিনি।

ওই কবিরাজ তাদের বলে যে দুটি পশু অথবা কোনো মানুষকে বিসর্জন (কোরবানি) দিতে হবে। সেই পরিবার দুটি ষাঁড়ের ব্যবস্থা করতে না পেরে তাদের একই গ্রামের দিবাকর যাদব নামে এক কিশোরকে ‘কোরবানি’ দেয়।

পুলিশ কর্মকর্তা দিবাকর যাদব বলেছে, হত্যার দায়ে ওই পরিবারের তিন ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন রামগোপাল তার মা স্বরস্বতী এবং তাদের আত্মীয় রামশঙ্কর। ওই পরিবারের তিন সন্তান মানসিকভাবে অসুস্থ বলেও জানান তিনি।

মানসিকভাবে অসুস্থ সেসব শিশুকে বাঁচাতেই কবিরাজের দারস্থ হয়েছিলেন ওই পরিবারের সদস্যরা। পুলিশ বলছে, আটক তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হচ্ছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারা মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হবে।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.