মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা -সাপাহার থানার ওসি তারেকুর রহমান সরকার

0
305

নয়ন বাবু, নওগাঁ : মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে কঠোর ভাবে রুখে দাঁড়িয়েছে সাপাহার থানা পুলিশ। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার-এর নেতৃত্বে মাদক ও জুয়া মুক্ত সুন্দর একটি উপজেলা গড়ে তুলতে টিম করে থানা পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে।

থানা সুত্রে জানা গেছে, গত নভেম্বর মাস থেকে জানুয়ারীর মাস পর্যন্ত প্রায় ৪০০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ১০০ পিচ ফেন্সিডিল ও ৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এছাড়াও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে সাপাহার থানায় দায়ের করা ২৬টি মামলায় ৫০ জনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার-এর কঠোর নজরদারীতে এ উপজেলায় কমেছে সব ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ড। তিনি থানায় যোগদান করেই মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছিলেন।
তিনি মাদক, ছিনতাই ও সন্ত্রাসীদের দিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন। মাদক ব্যবসায়ী, জুয়াড়ী, দাদন ব্যবসায়ী (সুদখোর) ও মাদক সেবনকারীদের এ থানায় ঠাঁই নেই বলে কঠোর হুসিয়ারী দিয়েছেন। এ ধরনের অপরাধীদের রুখতে তিনি একাধীকবার সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করেছেন।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার বলেন, উপজেলা সদর এলাকা সহ মোটি ৬টি ইউনিয়নে মাদক ও জুয়া সহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নে পুলিশ সদা তৎপর রয়েছে । থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের মাঝে গতি ফিরিয়ে আনতে তিনি প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি তার দায়িত্ব পালন করছেন সততা ও দক্ষতার সাথে।
পুলিশের কোন সদস্যও যদি মাদক ও জুয়ার সঙ্গে জড়িত থাকে সে ক্ষেত্রে তাকেও ছাড় দেওয়া হবে না। তিনি মাদক ও জুয়ামুক্ত সাপাহার উপজেলা গঠনে সকলের কাছ থেকে আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা চেয়েছেন।

সাপাহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজাহান হোসেন বলেন, অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বর্তমানে থানা পুলিশের সদস্যরা মাদক, জুয়া নির্মুল সহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নে অনেক বেশী তৎপর ভাবে কাজ করছে।
যে কোন সময়ে পুলিশের সহযোগিতা চাইলে আন্তরিকতার সাথে জনগণকে সহযোগিতা করছেন বর্তমান ওসি তারেকুর রহমান সরকার। তিনি পুলিশের কাজে জনগনকে আন্তরিকতার সাথে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহবান জানান ।

সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কল্যাণ চৌধুরী ওসি তারেকুর রহমান সরকার সহ থানার সকল পুলিশ সদস্যদের দায়িত্ব ও ভূমিকার প্রশংসা করেন।

প্রায় সকল ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিগণ বলছেন, বর্তমান ওসি তারেকুর রহমান সরকার এই থানায় যোগদানের পর অপরাধমূলক কর্মকান্ড অনেকটা কমেছে।