মহাসড়কে চলন্ত ট্রাকে উঠে নিরাপত্তা কর্মীকে ‘খুন’

72


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামে আবুল খায়ের গ্রুপের লোহার কারখানার কাঁচামাল বোঝাই ট্রাক থেকে এক নিরাপত্তা কর্মীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা, ডাকাতির উদ্দেশে চলন্ত ট্রাকে উঠে দুর্বৃত্তরা তাকে শ্বাসরোধে খুন করে।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়িতে আবুল খায়ের গ্রুপের কারখানায় ট্রাক থেকে মালামাল নামানোর সময় ওই নিরাপত্তা কর্মীকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত আবুল হাশেমের (১৯) বাড়ি নোয়াখালীর বেমগঞ্জ উপজেলায়। তিনি একটি বেসরকারি নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানের কর্মী।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন কান্তি বণিক সারাবাংলাকে জানান, নগরীর সদরঘাট থেকে পিগ আয়রন (লোহা তৈরির কাঁচামাল) নিয়ে ট্রাকটি আবুল খায়ের গ্রুপের কারখানায় যায়। সেই ট্রাক কারখানায় পৌঁছার পর মালামাল খালাস করতে গিয়ে দেখা যায়, ট্রাকে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত আবুল হাশেমের লাশ পড়ে আছে। পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়েছে।

‘বড় বড় কারখানার মালামাল বোঝাই ট্রাকে সশস্ত্র অথবা নিরস্ত্র নিরাপত্তা কর্মী থাকে। বিভিন্ন সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান থেকে তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়। কারখানা কর্তৃপক্ষই তাদের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে নিয়োগ দেয়। আবুল খায়ের গ্রুপের মালামাল নিয়ে যাওয়া ট্রাকটিতে চালক ও সহকারি সামনে ছিল। পেছনে ছিল নিরাপত্তা কর্মী আবুল হাশেম’— বলেন পুলিশ পরিদর্শক সুমন।

ট্রাক চালকের বরাতে সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, ভোর রাত সাড়ে তিনটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নগরীর আকবর শাহ থানার লতিফপুর এলাকায় একটি সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে ট্রাকটির গতিরোধের চেষ্টা করে কয়েকজন যুবক। ট্রাক লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়। কয়েকজন যুবক দ্রুত ট্রাকে উঠে যায়। তবে চালক দ্রুত ট্রাক কারখানায় নিয়ে যায়। সেখানে হাশেমের লাশ পাওয়া যায়।

ঘটনাস্থল নগরীর আকবর শাহ থানা এলাকায় হওয়ায় সেখানে মামলা হবে বলে জানিয়েছেন ওসি আবুল কালাম আজাদ। এদিকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে আকবর শাহ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির হোসেন সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা সীতাকুণ্ড থানার মাধ্যমে জানতে পেরেছি যে, সিটি গেটের পরে অটোরিকশার মাধ্যমে ব্যারিকেড দিয়ে একটি ট্রাকে ডাকাতির চেষ্টা হয়েছে। আমরা বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ডাকতি করতে গিয়ে এ ঘটনা নাকি এর পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে সেটা আমরা খতিয়ে দেখছি।’

সারাবাংলা/আরডি/পিটিএম





Source link