ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে যে কারণে ব্যাথার ওষুধ খাবেন না

628


লাইফস্টাইল ডেস্ক

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যম বলছে, করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার আগে ব্যাথার ওষুধ বা পেইনকিলার খাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ডব্লিউএইচও। এর পেছনের কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যাথার ওষুধ শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরিকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে। ভ্যাকসিন শরীরের ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধী ব্যবস্থা গড়ে তোলে যার কারণে সাময়িক ব্যাথা, জ্বর বা জ্বালাপোড়া হতে পারে যার অর্থ ভ্যাকসিন শরীরে কাজ শুরু করেছে।

ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে ব্যাথার ওষুধ গ্রহণের ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভ্যাকসিন গ্রহণের পর শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা যে প্রতিক্রিয়া দেখায় কিছু ব্যাথার ওষুধ সেটি কমিয়ে দিতে পারে। এসব ওষুধ শরীরে ভাইরাসের অ্যান্টিবডি’র উৎপাদনও কমিয়ে দিতে পারে।

আরেকটি গবেষণায় পাওয়া গেছে, ব্যাথার ওষুধ শিশুদের ভ্যাকসিনের কার্যকারিতাকে অনেক কমিয়ে দেয়। তাই অনেক চিকিৎসক ভ্যাকসিন গ্রহণের আগে শিশুদের ব্যাথার ওষুধ না দেয়ার পরামর্শ দেন। তবে শুধুমাত্র প্রয়োজন হলেই ভ্যাকসিন গ্রহণের পর ব্যাথার ওষুধ দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র (সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রেভেনশন) করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের আগে ব্যাথার ওষুধ না নেওয়ার সুপারিশ করেছে। এটি বলছে, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর কোন ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলেই শুধুমাত্র চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ব্যাথার ওষুধ খাওয়া যাবে।

তবে অনেকেই শারীরিক অসুস্থ্যতার জন্য এ মুহুর্তে নিয়মিত ব্যাথার ওষুধ খাচ্ছেন। তারা ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে সেটি গ্রহণ বন্ধ না করে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

তবে ভ্যাকসিন গ্রহণের পর জ্বর, শরীর, মাথা ও পেশীতে ব্যাথা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী পেইনকিলার খেতে পারবেন বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সারাবাংলা/এসএসএস





Source link