ভৈরবে এনএটিপির অর্থায়নে গবাদি পশুর ক্ষুরারোগের টিকা দান

0
249

আজ মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) শহরের জগন্নাথপুর-লক্ষ্মীপুর এলাকায় এই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম খাঁন। এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ওই এলাকার ১৭০টি গরু এবং ৮০টি ছাগলকে ক্ষুরারোগের ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ওই ক্যাম্পেইনে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম খাঁন বলেন, গবাদি পশুর যেসব রোগ মারাত্মক ও অর্থনৈতিক ক্ষতি সাধন করে, এরমধ্যে অন্যতম হলো ক্ষুরারোগ। ফুট এন্ড মাউথ অর্থ্যাৎ এফএমডি সাধারণত ক্ষুরারোগ নামে পরিচিত। দ্বিবিভক্ত পশুর ক্ষুরে এই রোগ বেশী হয় বলে একে ক্ষুরারোগ বলা হয়ে থাকে। মুখে ও ক্ষুরে ক্ষত, প্রচণ্ড জ্বর, লালা ঝরা, খেতে না পারা এই রোগের লক্ষণ সমূহ।

বাংলাদেশে শীত-বর্ষা উভয় কালসহ প্রায় সব ঋতুতেই এই রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যায়। আমাদের দেশের ভৌগলিক ও পরিবেশগত কারণেই এই রোগ প্রকট। এই রোগের কারণে দেশের ডেইরিশীল্পের বার্ষিক ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৯৭২ কোটি ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

এই রোগের বিষয়ে খামারিসহ প্রত্যেক কৃষককে সব সময় সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি ক্ষুরারোগের হাত থেকে গবাদি পশুকে রক্ষায় নিয়মিত ভ্যাকসিনাইস করাসহ এই রোগের লক্ষণ দেখা মাত্র উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে যোগাযোগের জন্য সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে