ভূলে কাউকে ম্যাসেঞ্জারে ম্যাসেজ পাটালে তা মুছে ফেলা যাবে, জেনে নিন!

প্রযুক্তি ডেস্ক: সেন্ড বোতামটা ক্লিক করার পরের মুহূর্তেই কখনও মনে হয়েছে, ইশ… এই মেসেজটা না পাঠালেই ভাল হত। কিংবা ভুল করে একটি মেসেজ অন্যজনকে পাঠিয়ে দিয়ে মাথায় হাত পড়েছে? আপনার প্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট এবার সে সমস্যারও সমাধান করে দিচ্ছে। এবার আপনার ফেসবুক মেসেঞ্জারের অভিজ্ঞতা হয়ে উঠবে আরও আকর্ষণীয়।

মঙ্গলবার ফেসবুক মেসেঞ্জারে যুক্ত হয়েছে একটি নতুন ফিচার। যার মাধ্যমে পাঠিয়ে দেওয়া মেসেজটি ফেরত পাওয়া সম্ভব। কীভাবে? মেসেজ পাঠানোর পর ১০ মিনিট সময় পাবেন প্রেরক। তার মধ্যে পাঠানো মেসেজটি সরিয়ে ফেলার অপশন পাবেন তিনি। ফলে গ্রাহকের কাছে আর সেই মেসেজ পৌঁছবে না। তার পরিবর্তে গ্রাহক শুধুই একটি লাইন পড়তে পারবেন। তা হল, ‘একটি মেসেজ মুছে ফেলা হয়েছে।’ যাঁরা হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন, তাঁরা এই ফিচারটির বিষয়ে অবগত। কারণ এই মেসেজিং অ্যাপেও একই ফিচার রয়েছে। এর ফলে ব্যক্তিগত স্তরে হোক বা গ্রুপে, লজ্জার হাত থেকে অনায়াসে বাঁচতে পারেন আপনি।

বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডকে রোম্যান্টিক কোনও ছবি বা বার্তা মেসেঞ্জারে পাঠাতে গিয়ে ভুল করে অফিসের গ্রুপে কিংবা মা-বাবার কাছে যদি তা পৌঁছে যায়, তাহলেই বিপদ। এমনটা অনেকের ক্ষেত্রেই হয়েছে। আর এই মারাত্মক ভুলের কথা মাথায় রেখেই নয়া ফিচার আনল মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা। ভুল করে পাঠানো মেসেজটি দশ মিনিটের মধ্যে মুছে ফেললেই নো টেনশন। বর্তমানে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ মেসেঞ্জার ব্যবহার করেন।

সম্প্রতি ফেসবুক থেকে ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের অভিযোগে জর্জরিত হয়েছিলেন জুকারবার্গ। অনেক ইউজারই ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছিলেন। ইউজারদের তথ্য সুরক্ষার দিকে নজর দেওয়ার পাশাপাশি তাঁদের জন্য এবার নয়া ফিচারও আনল ফেসবুক। অ্যাপেল আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েডের আপগ্রেডেড ভার্সানে যুক্ত হয়েছে এই ফিচার।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.