ভিক্ষুকের টাকা আত্মসাৎ: কথিত ‘এনজিও প্রধান’ আটক

222


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীতে ভিক্ষুক-প্রতিবন্ধীসহ নিম্ন আয়ের মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে কথিত এক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার (এনজিও) প্রধানকে আটক করেছে পুলিশ। প্রতারণার শিকার লোকজন ওই নারীকে অফিসে অবরুদ্ধ করে পুলিশকে খবর দেয়।

সোমবার (২২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর পাঁচলাইশ থানার হামজারবাগ এলাকা থেকে জান্নাতুল নাঈমা (৩৩) নামে ওই নারীকে আটক করা হয়েছে। পরে কয়েক’শ লোক থানার সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন।

জান্নাতুল নাঈমা নিজেকে সেভ এজ ইওর আর্ন (এসএওয়াইএ) নামে একটি সংস্থার প্রধান হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবীর সারাবাংলাকে জানান, এসএইওয়াইএফ নামে সংস্থাটি এনজিওর আদলে পরিচালনা করেন জান্নাতুল নাঈমা। সেখানে তার অধীনে আরও লোকজন কাজ করেন। তারা মূলত ব্যাংকের মতো করে টাকা জমা নেন, এর বিপরীতে অনুদান ও ক্ষুদ্রঋণ দেওয়ার আশ্বাস দেন। তবে সংস্থাটির এনজিও হিসেবে কোনো সরকারি অনুমোদন নেই।

‘ভিক্ষুক, প্রতিবন্ধী ভাসমান লোকজন, গৃহকর্মী, নিম্ন আয়ের হতদরিদ্র লোকজনের কাছ থেকে সংস্থার লোকজন টাকা সংগ্রহ করে। আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, করোনার শুরুতে তারা সংস্থার কার্যক্রম শুরু করে। হামজারবাগসহ আশপাশের এলাকায় প্রায় ১৩ থেকে ১৪ হাজার লোকের কাছ থেকে ২০০ টাকা করে আদায় করেছে। অনুদান-ক্ষুদ্রঋণ দেওয়ার আশ্বাস দিলেও কেউই পাননি। বরং অফিসে ধর্ণা দিয়ে হয়রানির শিকার হয়েছেন।’

ওসি আরও জানান, হয়রানির শিকার লোকজন সোমবার বিকেলে হামজারবাগে ওই সংস্থার অফিসের সামনে জড়ো হন। তারা জান্নাতুল নাঈমাকে অবরুদ্ধ করে রেখে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এরপর সন্ধ্যায় কয়েক’শ লোক থানার সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। নাঈমার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত করে পুলিশ।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। প্রতারণার সঙ্গে আরও যারা জড়িত তাদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে ওসি জাহিদুল কবীর জানিয়েছেন।

সারাবাংলা/আরডি/এমও





Source link