ভারতে গেল ১২ টন ইলিশের প্রথম চালান

0
20

স্টাফ রিপোর্টার :: আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা হিসেবে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ইলিশের প্রথম চালান রপ্তানি হয়েছে ভারতে। প্রথমদিনে দুটি ট্রাকে গেছে ১২ টন ইলিশ। ইলিশের চালানটির রপ্তানিকারক খুলনার জাহানাবাদ সি ফিশ লিমিটেড। প্রতি কেজি ইলিশের রপ্তানি দর নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ ডলার হিসেবে আটশ’ টাকা। এই দরে রপ্তানি করা প্রতিটি ইলিশের সাইজ হবে এক কেজি থেকে ১২শ’ গ্রাম ওজনের।

মৎস্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ও বেনাপোলের ফিশারিজ কোয়ারেন্টাইন অফিসার মাহবুবুর রহমান জানান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবার ৯ জন রপ্তানিকারককে মোট ১ হাজার ৪৭৫ টন ইলিশ ভারতে পাঠানোর অনুমতি দিয়েছে। প্রতি কেজি ১০ ডলার দরে মোট ১ লাখ ২০ হাজার ডলার মূল্যের ইলিশ মাছ ভারতে রপ্তানি করা হবে। এ বছর মোট ১ হাজার ৪৭৫ টন ইলিশ মাছ ভারতে রপ্তানি করা হবে। বেনাপোল কাস্টমস থেকে মাছগুলো ছাড়িয়ে রপ্তানির দায়িত্বে নিযুক্ত হয়েছে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট নিলা এন্টারপ্রাইজ।

সূত্র জানায়, সোমবার দুপুরে ইলিশের চালান বেনাপোল বন্দরে এসে পৌঁছালে কাস্টমস ও মৎস্য বিভাগ আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে বিকেলে রপ্তানির অনুমতি প্রদান করে। পর্যায়ক্রমে মাসজুড়ে বাকি ইলিশ ভারতে যাবে।

সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মহিতুল হক জানান, বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা কোলকাতায় ইলিশ নিয়ে যাবেন। পরে সেখানকার বাজারে তা বিক্রি করবেন। কোলকাতা ছাড়াও এই ইলিশ বিক্রি হবে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বাজারে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১ আগস্ট বাংলাদেশ ইলিশ রপ্তানি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। এরপর গত বছর দুর্গোৎসবে শুভেচ্ছা হিসেবে ৬ ডলার হিসেবে ৫০৭ টাকা কেজি দরে পাঁচশ’ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছিল সরকার। ওই বছরের ১০ অক্টোবর বাংলাদেশ থেকে ইলিশ মাছের সর্বশেষ চালান ভারতে প্রবেশ করে।

Print Friendly, PDF & Email

Source link

মতামত