বিশ্বে মানবাধিকার আজ কেবল কথার কথা : মোস্তফা

0
132

ফিলিস্তিন, কাশ্মির, মিয়ানমারসহ সারা বিশ্বে মানবাধিকার চরমভাবে লংঘিত হচ্ছে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, বিশ্বে মানবাধিকার আজ কেবল কথার কথা। ব্যক্তিগত, সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অধিকারের নিশ্চয়তা দিয়ে ১৯৪৮ সালের এদিনেই গৃহীত হয় ঘোষণাটি। কিন্তু যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সামনে রেখে যাত্রা শুরু করেছিল, বর্তমানে তা নজিরবিহীন হুমকির মুখে।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সারা বিশ্বেই মানবতা ও মানবাধিকার আজ হুমকির মুখে। সবখানেই অধিকার লঙ্ঘনের মহোৎসব, এক অরাজক পরিস্থিতি। স্বাভাবিকভাবে জীবনধারণের অধিকার হারিয়েছে মানুষ। নেই খাদ্য, বস্ত্র ও বাসস্থানের অধিকার। পরিকল্পিতভাবে চালানো হচ্ছে গণহত্যা। নির্বিচারে বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়া হচ্ছে লাখ লাখ নিরীহ ও নিরপরাধ মানুষকে।

ন্যাপ মহাসচিব বলেন, মানবাধিকারের প্রবক্তারাই চাপিয়ে দিচ্ছে অন্যায় যুদ্ধ। ঘরবাড়ি হারিয়ে উদ্বাস্তু হচ্ছে মানুষ। এককথায়, এক খন্ড নরককুন্ড হয়ে উঠেছে পৃথিবী। শুধু ক্ষমতার লোভে বিশ্বজুড়ে ধ্বংসলীলায় মেতেছে বিশ্বের রাজনীতিকরা। একদিকে মানবতার বুলি আওড়াচ্ছে, অন্যদিকে মানুষ হত্যার তান্ডব চালিয়ে যাচ্ছে। সবচেয়ে বেশি মানবাধিকার হরণ করছে ‘মানবতার রক্ষকরা’ই।

তিনি বলেন, মানবতা ও মানবাধিকারের বিচারে বর্তমান বিশ্ব এক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। দেশে দেশে চলছে গণহত্যা আর জাতিগত নিধনযজ্ঞ। মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনী ও সংঘবদ্ধ বৌদ্ধ অধিবাসীদের অভিযান এর উৎকৃষ্ট দৃষ্টান্ত। মধ্যপ্রাচ্যে সিরিয়া ও ইয়েমেনে ধুঁকছে মানবতা। ক্ষুধা আর দুর্ভিক্ষের কবলে লাখ লাখ নাগরিক।

সংগঠনের চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব এডভোকেট সাইফুল ইসলাম সেকুল, সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠক ডক্টর প্রীতি শর্মা, আন্তর্জাতিক প্রবাসী মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এইচ এম মনিরুজ্জামান, সংগঠনের স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. আলমগীর কবির, কেন্দ্রীয় নেত্রী ডা. আছমা আক্তার মৌসুমী, কুমিল্লা জেলা সভাপতি পারভেজ হোসেন বাবু, মানিকগঞ্জ জেলা সমন্বয়কারী আয়েশা সিদ্দিকা, আইডিয়াল হিউম্যান ওয়েলফেয়ার সোসাইটির নির্বাহী সদস্য মোছাম্মদ সুরাইয়া আক্তার, সেলিনা সানমুন, রেসিডেন্সিয়াল স্কুলের প্র্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, আমরা আজ এমন এক সময় মানবাধিকার দিবসটি পালন করছি যখন বিশ্বের অনেকের মতই আমাদের আইনের শাসন ও মানবাধিকার প্রশ্নবিদ্ধ। বিচার ব্যবস্থা ও আইনের শাসনকে নষ্ট করা হয়েছে। মানুষের জানমাল, ইজ্জত-আবরুর আজ কোনো নিরাপত্তা নেই। দেশে প্রতিনিয়ত গুম, খুন, হত্যা, ধর্ষণ এবং মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা ঘটছে।

তিনি বলেন, মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা আজকাল বিশ্বব্যাপী ব্যাপকভাবে ঘটে চলেছে। দেশে দেশে যুগে যুগে ঘটছে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা। সমাজের অবহেলিত, নির্যাতিত, তৃণমূল পর্যায়ের জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে পদে পদে। সচেতন জনগোষ্ঠীরও অনেক সময় মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে। এই অবস্থা বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে যেমন, তার চেয়ে অনেক বেশি আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোতে।