বিদ্যালয় খুলে দিতে প্রস্তুত মন্ত্রণালয়

71


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দিতে সবধরনের প্রস্তুতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। তিনি জানান, এখন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার অপেক্ষা।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

জাকির হোসেন বলেন, ইতোমধ্যেই দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৮৫ ভাগ শিক্ষককে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। বাকি ১৫ ভাগ শিক্ষককেও দ্রুত দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার বিষয়ে আমাদের সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া আছে। তবে কবে নাগাদ খুলবে এটা বলা মুশকিল। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশমতো খোলা হবে। অবশ্যই তা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে।

তবে স্কুল খুললেও সব ক্লাস একসাথে নেওয়া হবে না। সপ্তাহের মধ্যে ভাগ ভাগ করে ক্লাস নেওয়া হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে স্কুল-কলেজ-মাদরাসা

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। ওই সময় ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এরপর দ্বিতীয় দফায় ৯ এপ্রিল ও তৃতীয় দফায় ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত সেই ছুটি বাড়ানো হয়। দফায় দফায় সেই ছুটি শেষ পর্যন্ত ১৭ মাসে ঠেকেছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে এরই মধ্যে একে একে গত বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের এইচএসসি, দাখিল ও সমমান পরীক্ষাও বাতিল করা হয়। সবশেষ প্রাথমিক থেকে শুরু করে মাধ্যমিক পর্যন্ত সব শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষাও নেওয়া হয়নি।

সারাবাংলা/জেআর/এএম





Source link