বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে আইপিএলে, পাপনকে সাকিবের ধন্যবাদ

0
80

কলকাতা, ০২ এপ্রিল – শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের সময় আইপিএল খেলার জন্য ছুটি চেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে ছুটি দেয়। সাকিবের এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশের ক্রিকেটে তোলপাড় শুরু হয়। সেটা কিছুটা স্তিমিত হতেই ফেসবুক লাইভে সাকিব নানা বিতর্কিত মন্তব্য করেন। সেখানে সাকিব বলেছিলেন, তার লেখা চিঠি ঠিকমতো পড়েনি বিসিবি। সেই চিঠি পরে সংবাদমাধ্যমেও চলে আসে। সাকিবের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে মাতেন বিসিবির কয়েকজন কর্মকর্তা। দেখা দেয় আইপিএল খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা।

বিসিবির অনাপত্তিপত্র (এনওসি) নিয়ে বিতর্ক মাথায় গত ২৭শে মার্চ আইপিএল খেলতে ভারতে পা রাখেন তিনি। সাকিব ভারতে যাওয়ার পর সংবাদমাধ্যমে কথা বলেননি বিসিবির কেউ। তবে পরিস্থিতি ‘ঠান্ডা’ হয়েছে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের হস্তক্ষেপে। নিজেই সেটা জানিয়েছেন টাইগার অলরাউন্ডার।

আরও পড়ুন : হাসপাতালে ভর্তি করোনায় আক্রান্ত শচীন

৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কলকাতা নাইট রাইডার্সে ফেরা সাকিবের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ হচ্ছে শুক্রবার। শনিবার থেকে ব্যাট-বলের অনুশীলনে নামবেন। ৭ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনের ষষ্ঠ দিনে বৃহস্পতিবার সাকিব কথা বলেছেন ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র সঙ্গে। ভারতের অন্যতম শীর্ষ সংবাদমাধ্যমটির সঙ্গে আলাপচারিতায় সাকিব ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতিকে। সাকিব বলেন, ‘সবকিছু ভালোভাবেই শেষ হয়েছে। আমি ধন্যবাদ দিতে চাই বিসিবি কর্মকর্তাদের। বিশেষ করে সভাপতিকে। তিনি সুষ্ঠুভাবে এটার সমাধান করেছেন।’

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সেই চিঠির মাধ্যমে সাকিব আইপিএলের জন্য ছুটি চেয়েছিলেন ঠিকই। তবে সেখানে সময় উল্লেখ করেননি। বিসিবি সাকিবের ছুটির সময় নির্ধারণ করে। এই বিষয়টা নিয়েই মূলত বিতর্ক। সাকিবের চিঠি ঠিকমতো না পড়ার দাবি করার পর সংবাদমাধ্যমে আকরাম খান (ক্রিকেট অপারেশন্স প্রধান) ক্ষোভের সঙ্গেই বলেন, ‘আমরা তার চিঠি পড়ে ভুল বুঝতে পারি। সে হয়তো টেস্ট খেলতে চায়। আগ্রহ থাকলে অবশ্যই সে টেস্ট খেলবে। সে ক্ষেত্রে তাকে দেওয়া আইপিএলের অনাপত্তিপত্রটি আমরা পুনর্বিবেচনা করব।’ তবে পরে আবার বলেছেন, ‘ও (সাকিব) যে সময়ের জন্য ছুটি চেয়েছে, সে সময়ে শ্রীলঙ্কায় আমাদের দুটি টেস্টই খেলতে যাওয়ার কথা। ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি নয়। সাকিব তো ওই সিরিজটা না খেলেই আইপিএল খেলতে চেয়েছে।’ টাইমস অব ইন্ডিয়ার সঙ্গে আলাপচারিতায় সাকিব দায় চাপিয়েছেন বিসিবি কর্তাদের উপরই। সাকিব বলেন, ‘আমি ইচ্ছে করে কখনই বিতর্কে জড়াতে চাই না। কিন্তু এটা তারাই (বিসিবি কর্র্তা) করেছে। তবে এটা এড়ানো যেত।’

সূত্র : মানবজমিন
এন এইচ, ০২ এপ্রিল

Source link