বিএনপির হুমকি দেখে আমরা অভ্যস্ত : ওবায়দুল কাদের

0
256

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট জালিয়াতির কোনো সুযোগ ছিল না। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে। ছোটখাটো ভুলত্রুটি বাদ দিলে নির্বাচনটি একটি ভালো নির্বাচন

হয়েছে। যারা পর্যবেক্ষক ছিলেন তারাও কিন্তু বিরূপ মন্তব্য করেননি, একমাত্র বিএনপি ছাড়া। তিনি বলেন, বিএনপি বিষোদ্গার করছে। কারণ তারা হেরে গেছে। তাদের বিষোদ্গার এত বেড়ে গেছে যে আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তাদের আন্দোলনের হুমকি দেখে আমরা অভ্যস্ত। এগুলো আমরা বারবার শুনে আসি।

গতকাল সন্ধ্যায় ধানম-িতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে নবনির্বাচিত মেয়রদের সঙ্গে মতবিনিময়সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক মামলায় জেলে নেওয়া হয়নি। রাজনৈতিক কারণে সরকার যদি খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করা হতো, তা হলে রাজনৈতিক কারণে মুক্তি দেওয়ার প্রশ্ন আসত। যেহেতু রাজনৈতিক কারণে এই মামলা হয়নি, তাই রাজনৈতিক বিবেচনারও সুযোগ নেই।

তিনি আরও বলেন, চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আন্দোলন করে মুক্ত করবে তারা। তাহলে আন্দোলন করুক। কিন্তু আন্দোলন করছে কার বিরুদ্ধে? আন্দোলন করছে আদালতের বিরুদ্ধে। খালেদা জিয়াকে তো এই সরকার মামলাও দেয়নি। তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিয়েছে এই মামলা।

আন্দোলনের নামে সহিংসতা করলে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়ার কথা উল্লেখ করে কাদের বলেন, তারা যে আন্দোলনই করুক, তারা আন্দোলন ডাক দিতে পারেন, তারা আন্দোলন করতে চাইলে করবেন; সরকার হিসেবে জনগণের জানমালের রক্ষার দায়িত্ব আমাদের। কোনো আন্দোলন যদি রাজনৈতিক হয়, আমরা সেটা রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করব। কিন্তু আন্দোলনের নামে যদি সহিংসতা হয়, যেটা তারা বারবার করে আসছে, সে রকম আন্দোলন তারা করতে চাইলে মোকাবিলা করা হবে। আমরা দাঁতভাঙা জবাব দেব।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সমাবেশের অনুমতিপ্রাপ্তি সরকারের সহনশীলতার পরিচয় উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার সহনশীলতার সঙ্গে বিষয়টা দেখছে। তাদের আন্দোলন আদালতের বিরুদ্ধে, প্রতিবাদ সমাবেশ আদালতের বিরুদ্ধে, সরকার এটি ধৈর্য সহকারে দেখছে। বিরোধীদের সমাবেশ করার অধিকার আছে, সেটা তারা বাস্তবায়ন করবে। সভা-সমাবেশে বাধানিষেধ শেখ হাসিনার সরকার কখনো করেনি, করবেও না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে