বাবরি মামলায় রায় শোনার পরই জয় শ্রী রাম বলে উঠলেন আদবানী -Deshebideshe

0
61

নয়াদিল্লী, ৩০ সেপ্টেম্বর- বাবরি মামলায় বেকসুর খালাস হয়েছেন ৩২ জন। রায় শোনার পরই ‘জয় শ্রী রাম’ বলে উঠেছেন বলে জানালেন লালকৃষ্ণ আদবানী।

১৯৯২ সালের বাবরি মসজিদ ধ্বংসের মামলায় আরও ৩১ জনের সঙ্গে অভিযুক্ত ছিলেন লালকৃষ্ণ আদবানী। তাঁর বিরুদ্ধেও মসজিদ ধ্বংসে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ ছিল।

এদিন রায়ের পর আদবানী বলেন, সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পথেই আরও এক ধাপ এগিয়ে দিল এই রায়। তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরই দীর্ঘদিনের রাম মন্দির দেখার স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে।

এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। বলেন, লক্ষ লক্ষ ভারতবাসীর সঙ্গে আমিও এখন শুধু রাম মন্দির সম্পূর্ণ হওয়ার অপেক্ষা করছি।

আরও পড়ুন: বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় ৩২ জন অভিযুক্তকেই বেকসুর খালাস

আদবাণীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অমিত শাহর। ফোন করে শুভেচ্ছা জানান জে পি নাড্ডা। রায়ের পরেই কোর্ট জুড়ে জয় শ্রীরাম ধ্বনি শোনা যায় এদিন।

এদিন আদালতের বিচারপতি বলেন, বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনা পরিকল্পিত ছিল না। এই মামলায় তাই প্রত্যেকেই বেকসুর খালাস।

লখনউয়ের বিশেষ আদালতে ২৪ বছরের পুরনো এই মামলার রায় ছিল বুধবার। আর সেই রায় মুক্তি পেলেন বিজেপি নেতৃত্ব লালকৃষ্ণ আদবানী, মুরলী মনোহর যোশী ও উমা ভারতী সহ ৩২ জন। যদিও এই তিনজন এদিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন না। ভিডিও লিংকের মাধ্যমে তাঁরা যোগ দেন।

জানা গিয়েছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার দরুণ আসতে পারেননি উমা ভারতী ও কল্যান সিং। করোনা থেকে সদ্য সেরে ওঠার জন্য আসেননি নৃত্য গোপাল দাসও।

বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় যে ৪৯ জন অভিযুক্ত ছিলেন, তার মধ্যে বর্তমানে জীবিত রয়েছেন ৩২ জন। এদের মধ্যে ২৬ জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

অভিযোগ ছিল ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর শতাব্দী প্রাচীন বাবরি মসজিদ ধ্বংস করতে প্ররোচনা দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা আডবাণী, যোশী, উমা ভারতী-সহ অন্যরা।

সূত্র : কলকাতা২৪
এন এইচ, ৩০ সেপ্টেম্বর

Source link