বাজেটে শ্রমিকশ্রেনীর জন্য রেশনিং ব্যবস্থা করুন : বাংলাদেশ ন্যাপ

69
nap

আসন্ন জাতীয় বাজেট ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশের শ্রমিক শ্রেনীর সাধারন মানুষর জন্য রেশনিংয়ের ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ বাজেটে সাধারন মানুষের চিকিৎসা, আবাসন ব্যবস্থার বিষয়ে গুরুত্ব প্রদানের আহ্বান জানান।

রবিবার (২৩ মে) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এ আহ্বান জানান।

তারা বলেন, বাজেট সমাজের দর্পণ। সমাজ দর্পণে শুধু আয়-ব্যয়ের হিসাব নয়, সরকারের লক্ষ্য উদ্দেশ বাজেট আলোচনায় উঠে আসে এবং এই বাজেটে সব সময় গুরুত্ব দেওয়া হয় স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ অন্যান্য খাতে। কিন্তু শ্রমিকদের বাজেট নিয়ে খুব বেশি আলোচনা হয় না।

নেতৃদ্বয় বলেন, শ্রমিকদের জীবন-জীবিকার স্বার্থে যে যেখানে আছে, সেখান থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। ৫০ বছর আগে আদমজী শ্রমিকদের আবাসন, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা ব্যবস্থা থাকলেও ৫০ বছর পরে শ্রমিকরা এ অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়ে পড়ল কোন কারণে? তাহলে ৫০ বছরে আমাদের অর্জন কী?

তারা বলেন, করোনাকালীন প্রেক্ষাপটে জাতীয় বাজেটে যদি শ্রমিকদের জন্য রেশনিং-এর ব্যবস্থা বরাদ্দ করা হয় তাহলে শ্রমিকরা ভালো থাকবে বলে মনে করছি। জাতীয় পর্যায়ে শ্রমিকদের ডাটাবেস থাকা দরকার। জাতীয় বাজেটে অন্যান্য খাতের ন্যায় শ্রমিকদের জন্য কি বরাদ্দ হবে তা বাজেট ঘোষণায় থাকতে হবে। শ্রমিকদের বীমা স্কিমের আওতায় আনা এবং শ্রমিকদের ভ্যাকসিনেশন ও সরকারিভাবে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির উপর গুরুত্বারোপ করতে হবে সরকারকে।

নেতৃদ্বয় আগামী বাজেটে অন্যান্য বাজেটের মতো শ্রমিকদের জন্যও বাজেট রেখে বাজেট ঘোষণা করা, শ্রমিকদের রেশন কার্ডের মাধ্যমে চাল-ডাল-তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী স্বল্পমূল্যে ক্রয়ের ব্যবস্থা করা, শ্রমিকের জন্য স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা তহবিল গঠন করার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।