বাংলাদেশ-পাকিস্তান-আফগানিস্তানের হিন্দুদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার দাবি, বিশ্ব হিন্দু পরিষদের

প্রতিবেশী ডেস্কঃ ভারতের দেশজুড়ে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী চালু করার দাবি তুলল বিশ্বহিন্দু পরিষদ। গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্বহিন্দু পরিষদের মুখপাত্র সুরেন্দ্র জৈন জানিয়েছেন, যেখানে সম্ভব জাতীয় নাগরিকপঞ্জী চালু করা উচিত। অন্ততপক্ষে যেসব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা নিজ রাজ্যেগুলিতে চাইছে সেই সকল রাজ্যে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী বলবৎ করা উচিত।
উল্লেখ করা যেতে পারে, আসামের সর্বশেষ জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর থেকে ১৯ লক্ষ মানুষের নাম বাদ গেছে। তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে খোদ রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে আশ্বস্ত করে বলা হয়েছে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী থেকে যাদের নাম বাদ গিয়েছে তাদের এখনই শিবিরে পাঠানো হবে না।
নাগরিক সংশোধনী বিল সম্পর্কে বলতে গিয়ে সুরেন্দ্র জৈন জানিয়েছেন, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানিস্তানে নির্যাতিত হচ্ছে হিন্দুরা। তাদেরকে নাগরিকত্ব প্রদান করা শুধুমাত্র স্রেফ কর্তব্য নয়, তা বৈধ কর্তব্য।
ইতিহাসের নজির টেনে এনে সুরেন্দ্র জৈন জানিয়েছেন, দেশভাগের পর তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী লিয়াকত আলির মধ্যে চুক্তিতে দুই দেশের সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষা করার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছিলেন। নাগরিত্ব সংশোধনী বিল ২০১৬ আইনে পরিণত হলে সমস্ত কিছুর সমাধান হবে।
সূত্র: জাগরণত্রিপুরা

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.