বাংলাকে বাংলাদেশ বানাতে চাইছে মমতা: শুভেন্দু অধিকারী

0
78

কলকাতা, ১৫ ফেব্রুয়ারি – পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা ব্যনার্জি ও সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানকারী নেতা শুভেন্দু অধিকারীর মধ্যে রাজনৈতিক লড়াই এখন বাংলাদেশ পর্যন্ত পৌঁছে গেল। ‘জয় বাংলা’ স্লোগান ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্য সরকারকে নিশানা করে শুভেন্দু বলেন ওরা এই স্লোগান আমদানি করে রাজ্যটাকে বাংলাদেশ বানাতে চাইছে। যদিও শুভেন্দুর দাবি তৃণমূলের এই স্বপ্ন কোনদিনই পূরণ হবে না। বাংলায় এবার পদ্ম ফুটবে এবং তৃণমূল সাফ হয়ে যাবে।

সামনেই পশ্চিমবঙ্গে ২৯৪ আসনে বিধানসভার নির্বাচন। সাম্প্রতিক কালে তৃণমূলের পাশাপাশি বিজেপি কর্মী-সমর্থকদেরকেও ‘খেলা হবে’ স্লোগান দিতে দেখা যাচ্ছে। তা নিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্যটির শিলিগুড়িতে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে শুভেন্দু বলেন ‘খেলা হবে- এই স্লোগান বাংলাদেশ থেকে এসেছে। নারায়ণগঞ্জের এমপি শামীম ওসমান চার বছর আগে এই স্লোগান দিয়েছিল যে ‘খেলা হবে-খেলা হবে’। পশ্চিমবঙ্গে যে তৃণমূল সরকার আছে, তারা পশ্চিমবঙ্গকে বাংলাদেশ বানাতে চায়। এই কারণে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান বাংলাদেশ থেকে নিয়ে এসেছে। আর আমাদের স্লোগান হল ‘ভারত মাতা কি জয়’, ‘জয় শ্রী রাম।’

আরও পড়ুন : মা কিচেন : মাত্র ৫ টাকাতেই মিলল গরম ভাত-ডাল-সবজি-ডিমের ঝোল

শুভেন্দু আবারও বলেন ‘খেলা হবে’- এটা বিজেপির স্লোগান নয়, বরং বিজেপির কর্মীরা এটাকে কাউন্টার করছে। আমাদের বিজেপির মাঠ পর্যায়ের যে কর্মীরা আছে তারাও বলছে খেলা হবে, পদ্ম ফুলের মেলা হবে, তৃণমূলকে ফেলা হবে।’
উল্লেখ্য, ‘জয় বাংলা’ স্লোগানটিকে ঘিরে বিতর্কের শেষ নেই। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের সময় মূলত বিজেপির ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানকে টক্কর দিতেই মমতা ব্যনার্জি নিজে এই স্লোগানটিকে ব্যবহার করতে শুরু করেন এবং দলীয় নেতা-কর্মীদেরর নির্দেশ দেন। কিন্তু বিজেপির অভিযোগ এই স্লোগানটি বাংলাদেশের। এই স্লোগান ছিল মুক্তিযুদ্ধকালনি বাঙালির প্রেরণার উৎস।

আসন্ন নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় আসবে বলেও জানান শুভেন্দু জানান। তিনি বলেন, ‘তৃণমূলের যা ইচ্ছা করতে পারে, তাতে কিছু যায় আসে না। পশ্চিমবঙ্গের মানুষ ঠিক করেই নিয়েছে যে এবার তারা ডাবল ইঞ্জিন সরকারই বানাবে। বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েই মোদিজির নেতৃত্বে বিজেপি সরকার নির্বাচনে জিতবে ও ক্ষমতায় আসবে। মোদি ও অমিত শাহ যে স্লোগান দিয়েছিলেন ‘২০১৯-এ হাফ, ২০২১-এ সাফ’- সেটাই হতে চলেছে।’

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন
এন এ/ ১৫ ফেব্রুয়ারি

Source link