বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে স্পেন যুবলীগের আলোচনা সভা

0
459

কবির আল মাহমুদ, স্পেন :

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে আওয়ামী যুবলীগ স্পেন শাখা। স্থানীয় সময় সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের মেহমান খানা রেস্টুরেণ্টে এ আলোচনা সভায় স্পেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনসহ একাধিক অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা এতে যোগ দেন। আশপাশের কয়েকটি রাজ্য থেকেও বেশ কয়েকজন নেতা আলোচনায় অংশ নেন। স্পেন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোঃ ইফতেখার আলম এর সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন।

যুবলীগ নেতা ওলিউর রহমানের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য দেন,বাংলাদেশ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাবেক সভাপতি প্রবীন কমিউনিটি নেতা মোঃ আব্দুল মালেক, স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল কাদের ঢালী, প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা শেখ মোহাম্মদ ইসলাম,বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন স্পেনের সভাপতি সাংবাদিক এ কে এম জহিরুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আহমদ আসাদুর রহমান সাদ, স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক সহ সভাপতি মোঃ বোরহান উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা আফসার হোসেন নীলু,স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন, স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ হাসান, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রফিক খান, প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ জসিম উদ্দিন মাস্টার, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ রুহুল আমীন রুবেল,বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন স্পেনের প্রচার সম্পাদক মোঃ আবুল কালাম, আওয়ামীলীগ নেতা হাজী তোয়াবুর রহমান, আনোয়ারুল কবির পরান, এম আই আমীন, মোঃ সাইফুর রহমান আমীন, যুবলীগ নেতা শিপন আহমদ রাহি, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুন নূর নীরব,রাজীব আহমদ, শফিকুন নূর, সুব্রত রয় শুভ, শাহিন মিয়া, সাদেক আহমদ, শাওন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দীর্ঘ নয় মাস কারাবরণ করে বঙ্গবন্ধু এই দিনে স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে ১০ জানুয়ারি পা রাখেন। ঐদিন বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন আজ আমার জন্ম স্বার্থক হয়েছে কারণ আমার সারা জীবনের স্বপ্ন স্বাধীন বাংলা বাস্তবায়ন করতে পেরেছি। তিনি যদি সেদিন ফিরে না আসতেন তাহলে বাংলার মানুষের কাছে স্বাধীনতা শব্দটির অর্থ ম্লান হয়ে যেতো। আমরা আজ তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করছি। বক্তারা জাতির পিতার জন্ম শতবার্ষিকী পালনের জন্য সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করার পাশাপশি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
আলোচনা সভা শেষে বিশেষ দোয়া ও নৈশভোজের মাধ্যমে সভা ও দোয়া মাহফিলের সমাপ্তি হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে