বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ফেলার হুমকিদাতা নুরানী গ্রেপ্তার

0
80

মুন্সিগঞ্জ, ২৩ এপ্রিল – রাজধানীর ধোলাইরপাড়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণ হলে সেটি ভেঙে বুড়িগঙ্গায় ফেলে দেয়ার হুমকি দেওয়া কওমি আলেম নূর হোসাইন নুরানীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার মুন্সীরহাট মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আলেম নূর হোসাইন নুরানী কওমি মাদ্রাসাকেন্দ্রিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সদস্য। এ ছাড়া আহমদিয়াবিরোধী আন্দোলন করা খতমে নবুওয়ত আন্দোলন বাংলাদেশ’র সভাপতি।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে, নুরানীকে কোন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে, তা জানাননি তিনি।

আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ‘হেফাজতের প্রত্যেকটি কর্মসূচিতে সামনের কাতারে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন নূর হোসেন নুরানী। হেফাজত নেতা মামুনুল হকের পক্ষে বিভিন্ন জায়গায় বক্তব্য প্রদান এবং বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় বিষয় নিয়ে স্পর্শকাতর মন্তব্য করেছেন তিনি।’

গত ১৪ নভেম্বর ধোলাইরপাড়ের এক সমাবেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণ হলে সেটি বুড়িগঙ্গায় ফেলার হুমকি দেন নুরানী।

সেদিন তিনি বলেন, ‘মূর্তি কীভাবে ভাঙতে হয় নবীপ্রেমিক মুসলমানরা জানেন। মূর্তির সঙ্গে বাংলাদেশের মুসলমানরা কোনো দিন আপস করবে না। ধোলাইরপাড়ে মূর্তি বানানো হলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভেঙে বুড়িগঙ্গায় ফেলে দেওয়া হবে।’ পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ হলে কঠোর আন্দোলনের হুমকি দেয় হেফাজত।

এ ছাড়া আরেক বিক্ষোভ সমাবেশে মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাসের ভাতিজা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপসম্পাদক আপন দাসকে মুন্সিগঞ্জে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দিয়েছিলেন তিনি।

সূত্র : আমাদের সময়
এন এইচ, ২৩ এপ্রিল

Source link