ফেসবুকে মিথ্যা সংবাদ ও গুজব ছড়া‌নোয় গ্রেফতার

0
302

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে Jarine Afrine Ruma নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে গত ২৯ এপ্রিল ২০২০ খ্রিঃ ভোররাত ০৪টা ০৭ মিনিটে একটি পোস্ট দিয়ে বলা হয়,‘ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে এক তরুনীকে ধর্ষণ করেছেন’।

পোস্টটি দৃ‌ষ্টিতে আসার সাথে সাথেই বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নামে চাঁদপুর জেলা পুলিশ ও বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার টিম। কিন্তু, বিষয়টি আঁচ করতে পেরে Jarine Afrine Ruma নামের ওই অ্যাকাউন্ট থেকে তড়িঘড়ি করে নিজের দোষ স্বীকার করে এবং ক্ষমা প্রার্থনা করে আরেকটি পোস্ট দেওয়া হয়। সেই পোস্টে উল্লেখ করা হয়, করোনা ভাইরাস মহামারীর সময়ে বাংলাদেশ পুলিশের চমলান মানবিক কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং গুজব রটানোর উদ্দেশে স্থানীয় এক ব্যক্তির প্ররোচনায় তিনি প্রথম পোস্টটি করেছিলেন। ওসির বিরুদ্ধে তিনি পূর্বে যে পোস্ট দিয়েছেন, আসলে তেমন কোনো ঘটনা-ই ঘটেনি। যে তরুনীর ধর্ষিত হওয়ার কথা তি‌নি বলেছেন, প্রকৃতপ‌ক্ষে তি‌নি তা‌কে চি‌নেন না বা ওই না‌মে আ‌দৌ কেউ র‌য়ে‌ছেন ব‌লে তার জানা নেই।

উ‌ল্লি‌খিত স্থানীয় ওই ব্য‌ক্তির প্র‌রোচনায় ইন্টারনেট থেকে তিনি অ‌চেনা একটি মেয়ের ছবি ডাউনলোড করে পোস্টে জুড়ে দিয়েছেন। ‌গুজব রটা‌নোর কার‌নে তি‌নি ল‌জ্জিত উ‌ল্লেখ ক‌রে ক্ষমা প্রার্থনা ক‌রেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে মিথ্যা তথ্য কিংবা গুজব ছড়ানো আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এছাড়া, এর মাধ্য‌মে একজন পু‌লিশ কর্মকর্তা‌কে সামা‌জিকভা‌বে বিত‌র্কিত ক‌রে তাঁঁর ব্য‌ক্তিগত ও পা‌রিবা‌রিক সুনাম নষ্ট করা হ‌য়ে‌ছে। ক‌রোনাকা‌লে গুরুত্বপূর্ণ এ সম‌য়ে জনগ‌ণের জন্য পু‌লি‌শের সেবাধর্মী কার্যক্রম‌কে বাধাগ্রস্থ করারও প্রয়াস এ‌টি। যে ক‌ো‌নো গঠনমূলক সমা‌লোচনা ও স‌ঠিক অ‌ভি‌যো‌গের ক্ষে‌ত্রে তাৎক্ষ‌নিক ব্যবস্থা‌ নি‌তে কখ‌নো কার্পণ্য ক‌রে‌নি বাংলা‌দেশ পু‌লিশ এবং কর‌বেও না। পাশাপা‌শি, গুজব র‌টি‌য়ে ও মিথ্যাচার ক‌রে মানুষ‌কে বিভ্রান্ত করা ও জনস্বার্থ‌বি‌রোধী যে কো‌নো কা‌জের ক্ষে‌ত্রে বাংলা‌দেশ পু‌লিশের ক‌ঠোর আইনী অবস্থান অব্যাহত থাক‌বে।

উ‌ল্লেখ্য, ই‌তোম‌ধ্যেই অভিযান চালিয়ে Jarine Afrine Ruma নামের অ্যাকাউন্টটির প্রকৃত ব্যবহারকারীসহ দু’জন‌কে আটক করেছে পুলিশ। ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আই‌নে মামলা দা‌য়ের করা হ‌য়ে‌ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে