প্রত্যাশামতো পারিশ্রমিক পাই না, খেলা হচ্ছে তা-ই অনেক : মুশফিক

0
564
musfik

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে পারশ্রমিক নিয়ে সন্তুষ্ট নন খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। গত মাসে বেতন ভাতা বৃদ্ধিসহ ১৩ দফা আন্দোলনের পর আজ বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শুরুর দিন পারিশ্রমিক নিয়ে মুখ খোলেন তিনি। জানান, প্রত্যাশামতো পারিশ্রমিক পান না, খেলা হচ্ছে তা-ই অনেক।

আজ বুধবার দুপুরে খুলনা টাইগার্স অনুশীলন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একাডেমি মাঠে। পরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পারিশ্রমিকের বিষয়ে আক্ষেপের কথাটি তোলেন।

মুশফিক বলেন, ‘আমরা সবসময় প্রত্যাশিত পারিশ্রমিক পাই না। এবার তো অনেক তাড়াতাড়ি হয়েছে। লাকিলি এবার খেলাটা হচ্ছে সেটাই অনেক। আমরা নীতি নির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।, তারা সেভাবে আশ্বস্ত করেছেন। এরপর থেকে বেতন বা ভাতা আমরা ঠিকঠাক পাবো বলে আশা করি।’

বিপিএলেও এই বিশেষ আসরে মুশফিক খেলছেন ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরিতে। এই ক্যাটাগরির মূল্য ধরা হয়েছে ৫০ লাখ টাকা। অন্যদিকে বিদেশি প্লেয়ারদের ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের মূল্য ধরা হয়েছে ১ লাখ ডলার অর্থাৎ ৮৪ লাখ টাকা। এই ক্যাটাগরিতে আরও আছেন- মাশরাফি, তামিম ও মাহমুদউল্লাহ।

পারিশ্রমিক নিয়ে মুশফিক আরও বলেন, ‘আমরা সারা বছর খেলি, তারপরও দেখা যায় অনেকের থেকে আমরা কম পাচ্ছি যারা শুধু টি-টোয়েন্টি খেলে। এটা আমাদের জন্য ডিসক্রেডিট। বিশ্বে সব লিগে কিন্তু লোকাল খেলোয়াররা বেশি পারিশ্রমিক পান। আমাদের নিজেদের খেলার মানটাও বাড়াতে হবে আশা করবো আমরাও যাতে এবার ভালো খেলা দেখাতে পারি যাতে করে আমাদের বেতনটা বৃদ্ধি পাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘পারিশ্রমিক বেশি হলেই যে আপনি টিম পাবেন, তা না। এ বছর দেখেন অনেক ভালো ভালো খেলোয়ারও টিম পায়নি। আমার মনে হয় সে দিকটা বিবেচনা করেই আমাদের এগুলো ঠিক করা উচিত। এ বছরের বিপিএলটা সবার জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং, আমার জন্যও চ্যালেঞ্জিং।’

এ বার বিপিএল পরিচালনা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পারিশ্রমিক নিয়ে মুশফিকদের আশ্বাসও দেওয়া হয়েছে বোর্ড থেকে। মুশফিক বলেন, ‘আমরা আশ্বাস পেয়েছি। আর এটা পরের বিপিএল থেকেই হবে। এবারেরটা অনেক তাড়াতাড়ি হচ্ছে সুতরাং এটি মাঠে গড়াচ্ছে সেটিই আমাদের জন্য অনেক বড় ফ্যাক্ট। পরের বছর থেকে সব ঠিক হয়ে যাবে এমনটা আশ্বাসই আমরা পেয়েছি।’

বিদেশি খেলোয়াড়ের ভিত্তিমূল্যের সঙ্গে দেশি খেলোয়াড়দের মুল্যর পার্থক্য প্রায় ৩৪ লাখ। এ নিয়ে মুশফিকুর রহিম বলেন, ‘বিদেশি প্লেয়ারদের সাথে ডিফারেন্সটা যাতে কম হয় সেটা অবশ্যই খেয়াল রাখবেন। রিভিউ করা উচিৎ তাদের জন্যও ভাবা উচিৎ কারণ, টপ প্লেয়ার হয়তো ৪ জন বা ৫ জন আছেন। কিন্তু ৫০ থেকে ৬০ জন আছে যারা প্রতি বছর দারুণ পারফর্ম করে যাচ্ছে। ইভেন বিপিএলে অনেক ভালো খেলে। আমি যদি বলি শফিউল, তাইজুল, রাহি এরা সবাই ভালো খেলেছ যারা কী না ‘বি’ কিংবা ‘সি’ ক্যাটাগরিতে আছে। এদের দিকটা দেখলে আমি মনে করি বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্যেই ভালো হবে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে