প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও কাজই শুরু হয়নি দুই ভবনের

0
89

ডেস্ক রিপোর্ট : : সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে চারটি মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়েছে জুন ২০২০ সালে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও এখনও প্রকল্পের আওতায় ডরমিটরি ভবন ও কোয়ার্টার ভবনের কোনো কাজ শুরুই হয়নি।

অন্যান্য কার্যক্রমও সন্তোষজনক নয় বলে জানিয়েছে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি)। গত ২৯ থেকে ৩১ জানুয়ারি আইএমইডি সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন। ৩০ জানুয়ারি সচিব ময়মনসিংহের মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটও পরিদর্শন করেন।

প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনের ওপর করা প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। পরিদর্শনের সময় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, ময়মনসিংহের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, আফরোজা বেগম, নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ইউসুফ আলী, সহকারী প্রকৌশলী রাসেল মিয়াসহ অন্যান্য প্রকৌশলীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, প্রকল্পটির জানুয়ারি ২০১৮ থেকে জুন ২০২০ মেয়াদে বাস্তবায়ন করেছে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। কিন্তু এই প্রকল্পটির কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে ২০২০ সালের মার্চে। প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমের বাস্তবায়ন অগ্রগতি হচ্ছে, ছয় তলা প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি হয়েছে ২২ শতাংশ। ছয় তলা একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ২০ শতাংশ, চার তলা ছাত্রী হোস্টেল ভবন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি হয়েছে মাত্র পাঁচ শতাংশ, ছয় তলা ওয়ার্কশপ ভবন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ২০ শতাংশ, পাঁচ তলা ডরমিটরি ভবন নির্মাণ কাজের কোন অগ্রগতি নেই ও তিন তলা স্টাফ কোয়ার্টার ভবন নির্মাণ কাজেরও কোনো অগ্রগতি নেই।

প্রকল্প পরিচালক যুগ্মসচিব (কারিগরি-৩) ড. মো. আয়াতুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রকল্প কাজের অগ্রগতি হয়নি। আমি কয়েকদিনের মধ্যেই প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করব। কাজের গতি বাড়াতে যা যা করার সব উদ্যোগ নেব। প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও পরিকল্পনা কমিশনে সংশোধনীর জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এর বেশি কিছু বলতে পারব না, কারণ আমি অনলাইনে ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রামে আছি।’

আইএমইডি সচিব বলেন, ‘এ প্রকল্পের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের আরও নিবিড় তদারকি প্রয়োজন। কর্তৃপক্ষকে ঠিকাদারের সঙ্গে সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করে দ্রুত প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করার জন্য বলেছি। বর্তমানে প্রকল্প এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভবন আছে। ভবনটি অপসারণ করা হচ্ছে, তবে কাজের গতি কম। বিভাগীয় শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজের বর্তমান অবস্থা গ্রহণযোগ্য নয়। সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে প্রকল্প বাস্তবায়নের হার দ্রুত বাড়াতে হবে। এ বিষয়ে আইএমইডির পক্ষ থেকে বিভাগীয় উন্নয়ন সমন্বয় কমিটিকে অবহিত করার জন্য বলা হয়েছে। মূল কথা প্রকল্পটির বাস্তবায়নে ধীরগতির সন্তোষজনক ব্যাখ্যা পাইনি।’

Print Friendly, PDF & Email

Source link