পুত্রবধূকে একা পেয়ে ধর্ষণ, হাতেনাতে শ্বশুর ধরা, অবশেষে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে ইউনুস আলী (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা। গত রোববার রাতে উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের বারঘড়িয়া শেখেরদীঘি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে ওই পুত্রবধূ বাদী হয়ে শ্বশুর ইউনুস আলীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। নির্যাতনের শিকার পুত্রবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

!-- Composite Start -->
Loading...

আটক ইউনুস আলী বারঘড়িয়া শেখেরদীঘি গ্রামের মৃত সহিদার রহমানের ছেলে। তিনি পেশায় কাঠমিস্ত্রি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রথম স্ত্রী থাকার পরও এক ছেলে সন্তানসহ দ্বিতীয় বিয়ে করেন কাঠমিস্ত্রি ইউনুস আলী। এক বছর পর ওই স্ত্রীর ছেলেকে বিয়ে দেন ইউনুস আলী। এরপর ছেলে স্ত্রীকে বাড়িতে রেখে কাজের সন্ধানে ঢাকায় যান। এই সুযোগে গতকাল রোববার রাতে ঘুমন্ত পুত্রবধূর ঘরে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষণ করে ইউনুস আলী। এ সময় পুত্রবধূর চিৎকারে স্থানীয়রা শ্বশুরকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

নির্যাতনের শিকার ওই পুত্রবধূ জানান, বিয়ের পর থেকে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে বিভিন্ন স্থানে ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে শ্বশুর ইউনুস আলী। প্রতিবাদ করলে ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দেয়। রোববার রাতে ইউনুস আলী ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে মহিষখোঁচা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোছাদ্দেক হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এমন ঘটনা এর আগেও সে (ইউনুস আলী) ঘটিয়েছে। এ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে একাধিকবার সালিশও হয়েছে।

আদিতমারী থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, পুত্রবধূর অভিযোগটি আমলে নিয়ে শ্বশুর ইউনুস আলীকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.