পাকুন্দিয়ার মঙ্গলবাড়ীয়া লিচু চাষীদের ক্ষতি

0
474

মো: তৌহিদুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :-জ্যৈষ্ঠ মাসের মিষ্টি ফলের এ সমারোহ আর মৌ মৌ গন্ধ জানান দেয় এটা মধুমাস। আম, কাঁঠাল, লিচু, আনারস আর জামের সমারোহ এখন। পাকুন্দিয়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম-গঞ্জের হাট-বাজার গুলোতে মৌসুমী ফল ক্রয়-বিক্রয় যেন উৎসবের আমেজ।

জ্যৈষ্ঠ মাস আসতে না আসতেই হাট-বাজারগুলো সয়লাব হয়েছে মৌসুমী ফলে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশেও বিখ্যাত কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার মঙ্গলবাড়িয়া গ্রামে এবার মধুমাসের ফল লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে।
মঙ্গলবাড়িয়ার প্রতিটি বাড়ির বসতভিটার বা আঙিনায় গাছে গাছে থোকায় থোকায় লাল টুকটুকে রং এর ক্ষুদ্রাকৃতির বিচি, পাতলা চামড়া ও বড় আকৃতির লিচু সবার নজর কাড়ছে।

মঙ্গলবাড়িয়া গ্রামের সুস্বাধু ও উন্নত জাতের লিচুর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। প্রতিটি লিচুই গোলাপী রঙের। শাঁস মোটা ও রসে ভরপুর এ লিচুর মূল জনপ্রিয়তা তার ঘ্রাণে।

কিন্তু এবার ফলন ভালো হলেও চিন্তায় আছেন লিচু চাষিরা। কারণ লকঢাউনের কারনে সে রকম ভাবে লিচু বিক্রি হচ্ছে না। এক লিচু চাষী জানান যে সে প্রায় ৫০ হাজার টাকা খরচ করে ৫-৭ টি লিচু গাছে, বিক্রি হতো ৩- ৪ লাখ টাকা। কিন্তু এবার তা অন্য রকম এখন দাম কমেছে অনেক প্রায় ১-২ লাখ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে