পশ্চিমবঙ্গে বাঘ-সিংহে বাক যুদ্ধ, উত্তপ্ত নির্বাচনী হাওয়া

রিতিশ পান্ডে, কলকাতাঃ লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বুধবার পশ্চিমবঙ্গে পাল্টাপাল্টি সভা করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শিলিগুড়ি ও ব্রিগেডে সভা করবেন মোদি। অপর দিকে এর পরপরই কোচবিহারের দিনহাটায় মমতা মোদির কথার জবাব দেবেন বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।
তবে মোদির কথার জবাব দিতে সভা করার জল্পনা খারিজ করে মমতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কথার প্রতিক্রিয়া জানানোর থাকলে তো কলকাতায় বসেই দিতে পারতাম। আমি নিজস্ব নির্বাচনী কর্মসূচিতে উত্তরবঙ্গ যাচ্ছি।’ খবর আনন্দবাজারের।

একই দিনে মোদী ও মমতার সভা ঘিরে রাজ্য জুড়ে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। মঙ্গলবার সেই দ্বৈরথের আবহ তৈরি করে মমতা বলেন, ‘বিজেপি কোনোভাবেই আর ক্ষমতায় ফিরতে পারবে না। কোনো, ভূগোল, ইতিহাস বিজেপিকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে আনতে পারবে না। এই বিষয়ে আমি শতভাগ নিশ্চিত।’
অন্যদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের দাবি, ‘বালাকোটে হানার পরে প্রমাণ চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মোদিজি নিশ্চয়ই তার জবাব দেবেন। তাছাড়া, এ রাজ্যের সার্বিক আর্থিক দুর্দশা, আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়া, বেতন বা চাকরি চাইতে গেলে শিক্ষকদের উপর লাঠিচার্জ- এসব নিয়েই তৃণমূলকে তিনি আক্রমণ করতে পারেন।’

!-- Composite Start -->
Loading...

এ দিনই আলিপুরদুয়ারে তৃণমূলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘এবারে লড়াইটা মোদির সঙ্গে মমতার। মাঝে আর কেউ নেই। তার কথায়, যে দলই প্রতিবাদ করতে গিয়েছে, ইডি, সিবিআই দেখিয়ে ধমকে-চমকে বাড়িতে বসিয়ে দিয়েছে। কিন্তু মমতা অন্য ধাতুর তৈরি।’

মোদির প্রথম সভা শিলিগুড়ির কাওয়াখালিতে। নির্ধারিত সময় বেলা ১টা। এরপর বিকেল তিনটার দিকে ব্রিগেডে বক্তব্য দেবেন মোদি। অন্যদিকে দিনহাটায় মমতার সভা বিকেল চারটে নাগাদ।
ব্রিগেডে মোদীর সভার ব্যাপক আয়োজন চলছে। দিলীপবাবু বলেছেন, ‘এ বারের সভায় জার্মান হ্যাঙার দিয়ে মাথা ঢাকা হবে। সেটা দেখতেও অনেকে আসবেন।’

প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কটাক্ষ করে বলেন, ‘লোক হবে না বুঝেই কোটি কোটি টাকা খরচ করে হ্যাঙার চাপাচ্ছে। যেন সিনেমা দেখব আমরা!’ আর সিপিএম নেতা সদস্য সুজন চক্রবর্তীর মন্তব্য, ‘ব্রিগেড ভরানোর ক্ষমতা ওদের নেই। উপর থেকে সেই ছবি যাতে তোলা না যায়, তাই এই কৌশল।’

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.