পরমাণু ‍চুক্তি থেকে আরও এক ধাপ সরে আসার ঘোষণা ইরানের

0
163

তেহরান, ১৭ ফেব্রুয়ারি – নতুন সংকটের দিকে মোড় নিচ্ছে ইরানের পরমাণু চুক্তি। ছয় বিশ্বশক্তির সঙ্গে সই করা চুক্তি থেকে আরও এক ধাপ সরে আসার ঘোষণা দিয়েছে উপসাগরীয় দেশটি।

গতকাল মঙ্গলবার কাতার-ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা বলেছে, পরমাণু কেন্দ্রগুলোতে আন্তর্জাতিক পরমাণুশক্তি সংস্থার (আইএইএ) পরিদর্শন বন্ধের পরিকল্পনা করছে ইরান।

প্রতিবেদন মতে, আইএইএ’কে ইরান জানিয়েছে— দেশটির পরমাণু কেন্দ্রগুলো হঠাৎ পরিদর্শনের যে সুযোগ সংস্থাটিকে দেওয়া হয়েছিল তা আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে বন্ধ রাখার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

গতকাল আইএইএ এক বার্তায় বলেছে, ‘ইরান জানিয়েছে চুক্তি অনুযায়ী স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে সেসব ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ছিল তা ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে বন্ধ করে দেওয়া হবে।’

পরমাণু চুক্তি অনুযায়ী আইএইএ’র পরিদর্শকরা ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলোর কার্যক্রম দেখতে সেখানে স্বল্প সময়ের নোটিশে পরিদর্শন করতে পারতেন।

আরও পড়ুন : যুক্তরাজ্যে ২০২৭ সাল পর্যন্ত জিএসপি সুবিধা পাবে বাংলাদেশ

গত সোমবার ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিল, যদি চলতি মাসের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি নিয়ে সৃষ্ট বিবাদ শেষ না হয় এবং ইরানের ওপর থেকে অবরোধ তুলে না নেওয়া হয় তাহলে তারা পরমাণু কেন্দ্রগুলোতে পরিদর্শকদের প্রবেশ বন্ধ দেবে।

২০১৮ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এককভাবে পরমাণু চুক্তি থেকে সরে এসে ইরানের ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করেন।

এর এক বছর পর ইরান ধীরে ধীরে চুক্তি থেকে সরে আসতে শুরু করে।

ইতোমধ্যে ইরান চুক্তি ভেঙে ইউরেনিয়াম ২০ শতাংশ সমৃদ্ধ করছে বলে জানিয়েছে। চুক্তিতে ইউরেনিয়াম ৩ দশমিক ৬৭ শতাংশের বেশি সমৃদ্ধ না করার কথা ছিল।

এ মাসের শুরুতে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি বলেছিলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র যদি চায় ইরান পরমাণু চুক্তি মেনে চলবে তাহলে তাকে ইরানের ওপর থেকে শুধু মৌখিকভাবে নয় কাগজে-কলমে অবরোধ তুলে নিতে হবে।’

সূত্র : দ্য ডেইলি স্টার
এন এ/ ১৬ ফেব্রুয়ারি

Source link