নড়েচড়ে না বসলে খাবারে ভাগ বসাবে চীন: বাইডেন

0
182

ওয়াশিংটন, ১২ ফেব্রুয়ারি – যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ফোনে দুই ঘণ্টা আলাপ করেছেন। চিন পিং পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করার কথা বলেন। তবে বাইডেন প্রকাশ করেছেন অন্য আশঙ্কা। চীনকে তিনি গুরুতর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে উল্লেখ করেন।

খবরে জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গত বুধবার রাতে মার্কিন সিনেটরদের সঙ্গে এক বৈঠকে এ কথা বলেন বাইডেন। বাইডেন সিনেটরদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘যদি আমরা নড়েচড়ে না বসি, তাহলে তারা আমাদের খাবারে ভাগ বসাবে।’ তিনি বলেন, চীনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রকে অবকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

বাইডেন বলেন, ‘চীন পরিবহন, পরিবেশ ও বিভিন্ন ক্ষেত্রের উন্নয়নে কোটি কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে। আমাদের এসব খাতে পদক্ষেপ বাড়াতে হবে।’

আরও পড়ুন : একসঙ্গে ১৩০টি গাড়ির ভয়াবহ সংঘর্ষ (ভিডিও সংযুক্ত)

বেইজিংয়ের দমনমূলক ও অন্যায্য বাণিজ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন বাইডেন। তাইওয়ান, হংকং ও জিনজিয়াংয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিয়েও সোচ্চার হতে আহ্বান জানান তিনি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে চীন সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য না দেওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জেন সাকি।

১১ মাস আগে গত ২৭ মার্চ সি চিন পিংয়ের সঙ্গে কথা বলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর থেকে দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সি চিন পিং নির্বাচনে জেতার জন্য বাইডেনকে অভিনন্দন জানান। যদিও বাইডেন নির্বাচনী প্রচারের সময় তাঁকে ঠগ বলে অভিযুক্ত করেন। নির্বাচনী প্রচারের সময় বাইডেন আন্তর্জাতিক চাপ প্রয়োগ করে চীনকে শাস্তি দেবেন বলে জানান।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভি বলেছে, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ও গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক-আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে দুই নেতা বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছেন।

সূত্র : নতুন সময়
এন এইচ, ১২ ফেব্রুয়ারি

Source link