নাগালের মধ্যে বাংলাদেশের মাছ, ইলিশ মাছের পাতুরিতে জমে যাক দুপুরের পাত!

0
69

বাংলাদেশ সরকারের সৌজন্যে পুজোর আগে মধ্যবিত্তের নাগালের মধ্যে আসতে চলেছে ইলিশ। পুজোর আগে প্রায় পনেরোশো মেট্রিক টন পদ্মার ইলিশ ধাপে ধাপে বাংলার বাজারে পৌঁছাবে। এর মধ্যেই ৬০ টন বাংলাদেশের ইলিশ পৌঁছে গিয়েছে বাংলার বাজারে। তাই ভোজনরসিক বাঙালি এখন সাধের রুপালি শস্য ঘরে তুলতে ব্যস্ত। তাই আজ থেকে ক’টা দিন ইলিশের নানা মুখরোচক পদ চেখে দেখা যাক…

ভেটকির হোক বা ইলিশ— পাতুরি চিরকালই বাঙালির বড্ড প্রিয়! ইলিশের অনেক রকম পদ রয়েছে। ইলিশ ভাপা, ইলিশের ঝাল বা ইলিশ মাছের কালো জিরা ফোড়নের পাতলা ঝোল তো অনেক খেয়েছেন। আজ শিখে নিয়ে বানিয়ে ফেলুন ইলিশ মাছের পাতুরি। আসুন জেনে নেওয়া যাক কী ভাবে বানাবেন ইলিশ মাছের পাতুরি।

ইলিশ মাছের পাতুরি বানাতে লাগবে:—

পরিষ্কার করা ইলিশ মাছ ৬ পিস, কলাপাতা ১ ফুট লম্বা, হলুদ আধা চামচ, স্বাদ মতো নুন, সরষের তেল ২ চামচ, টক দই ২ চামচ, সাদা সরষে বা কালো সরষে বাটা ১ চামচ, নারকেল বাটা ২ চামচ, পোস্ত বাটা ১ চামচ, কাঁচা লঙ্কা বাটা ১ চামচ, কিছুটা পরিস্কার সাদা সুতো।

Ilish Paturi

ইলিশ মাছের পাতুরি বানানোর পদ্ধতি:—

প্রথমে একটা বাটিতে টক দই, পোস্ত বাটা, সর্ষে বাটা, নুন, হলুদ, কাঁচা লঙ্কা বাটা, নারকেল বাটা আর সর্ষের তেল ভাল করে মেশাতে হবে।

ইলিশ মাছের পিসগুলিতে এই মিশ্রনটা ভাল করে মাখাতে হবে এবং অন্তত ১৫ মিনিট ম্যারিনেট করে রাখতে হবে।

কলাপাতাগুলোকে একটু আগুনের উপর হালকা করে ধরে আগুনের আঁচ লাগিয়ে নিতে হবে। এতে পাতাগুলো সহজে ছিড়ে যাবে না। তার পর কলাপাতায় নিচের দিকে সরষের তেল মাখিয়ে নিতে হবে। একটা কলাপাতার টুকরোতে তেল মাখানো দিকে একটা ইলিশ মাছের পিস রেখে সুতোর সাহায্যে ভাল করে পাতাটা ভাঁজ করে বাঁধতে হবে।

আরও পড়ুন: হুইল ছিপে উঠল ১২ কিলোর চিতল মাছ! আজ বাড়িতে কোফতা হলে কেমন হয়!

হাড়িতে অল্প জল নিতে হবে। হাড়ির উপরে একটি পাতলা সুতি কাপড় সুতো দিয়ে হাড়ির সঙ্গে ভাল করে বেঁধে দিতে হবে। জল গরম হয়ে ফুটে উঠলে কাপড়ের উপর পাতায় বাঁধা মাছগুলো ঢাকনা দিয়ে ভাল করে ঢেকে দিতে হবে। এর পর ১০-১৫ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

মাছ সেদ্ধ হয়ে গেলে ঢাকনা খুলে পাতায় বাঁধা মাছগুলোকে পাত্রে তুলে রাখুন। কলাপাতার সুতোর বাঁধন খুলে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন জিভে জল আনা ইলিশ মাছের পাতুরি।

Source link